বিয়েতে রাজী ছিল না কিশোরী, কীভাবে নিজেই নিজের বিয়ে বন্ধের উদ্যোগ নিল সে ?

বিয়েতে রাজী ছিল না কিশোরী, কীভাবে নিজেই নিজের বিয়ে বন্ধের উদ্যোগ নিল সে ?
Representational Image

বিয়ে করতে কিছুতেই রাজি হননি আসানসোল ওল্ড স্টেশন হাইস্কুলের দশম শ্রেণীর ছাত্রী সুইটি ভাণ্ডারি।

  • Share this:

#আসানসোল: বয়স সবে মাত্র ১৭ ছুঁই ছুঁই। ইতিমধ্যেই বাড়ির লোকজন বিয়ের জন্য তোড়জোড় শুরু করে দিয়েছেন। কিন্তু বিয়ে করতে কিছুতেই রাজি হননি আসানসোল ওল্ড স্টেশন হাইস্কুলের দশম শ্রেণীর ছাত্রী সুইটি ভাণ্ডারি।

শেষ পর্যন্ত স্কুলের প্রধান শিক্ষকের সহযোগিতায় মহকুমা শাসককে বিয়ে বন্ধের জন্য নিজেই চিঠি লিখলেন ছাত্রী। অবশেষে প্রশাসনের উদ্যোগে ছাত্রীর বিয়ে দেওয়ার তোড়জোড় বন্ধ হল। প্রসঙ্গত এর আগেও বিভিন্ন জেলায় দেখা গিয়েছে প্রশাসনের উদ্যোগে নাবালিকার বিয়ে বন্ধ হওয়ার ঘটনা।

আসানসোলের নিশ্চিন্তা গ্রামের বাসিন্দা সুইটি ভাণ্ডারি নামে ওই ছাত্রী জানান, এখনও তাঁর বিয়ে করার বয়স হয়নি। তার অভিযোগ, বাবা জোর করে বিয়ে দিতে চাইছেন। যদিও পরিবারের আর্থিক অবস্থা ঠিক নেই বলে বিয়ে দেওয়ার তোড়জোড় শুরু হয়েছিল। ইতিমধ্যেই পাত্রের খোঁজ শুরু হয়ে গিয়েছিল মেয়ের বাড়িতে।কিন্তু বিয়ে করতে আপত্তি জানায় ওই ছাত্রী। সে এখন পড়তে চাই। তাই পরিবারের বিরুদ্ধে গিয়ে বিয়ে করতে রাজি হয়নি। তারপর ছাত্রীটি পুরো বিষয়টি স্কুলের প্রধান শিক্ষক রবীন্দ্রনাথ সাহু-কে জানান। শেষ পর্যন্ত প্রধান শিক্ষকের উদ্যোগেই এই বিষয়টি প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করার পরই ছাত্রীর বিয়ের তোড়জোড় বন্ধ হয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত প্রশাসনের উদ্যোগে বিয়ে বন্ধ হয়ে যাওয়ায় খুশি ছাত্রী সুইটি ভাণ্ডারি।

First published: 09:04:51 PM Aug 03, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर