মেয়ে প্রেম করছে সন্দেহে মায়ের বকুনি, অপমানে আত্মঘাতী ছাত্রী

মেয়ে প্রেম করছে সন্দেহে মায়ের বকুনি, অপমানে আত্মঘাতী ছাত্রী
প্রতীকী চিত্র ৷
  • Share this:

#ক্যানিং: ক্যানিংয়ে আত্মঘাতী দুই ছাত্রী। মায়ের বকুনি পর অপমানে আত্মঘাতী হলেন এক কলেজ ছাত্রী।

বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করেন ওই ছাত্রী। মৃত ছাত্রীর নাম অনামিকা মন্ডল। ক্যানিং থানার গলাডোগরা এলাকার ঘটনা। মৃত অনামিকা ক্যানিং বঙ্কিম সর্দার কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্রী ছিলেন। গত কয়েকদিন ধরেই ফোনে বিভিন্ন বন্ধুদের সঙ্গে গল্প করতেন অনামিকা। সেই নিয়ে অনামিকার মা প্রায়ই জিজ্ঞাসাবাদ করতেন। অনামিকা বারবার মাকে জানিয়েছিলেন পড়াশোনার বিষয় নিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে কথা বলে সে। কিন্তু তাঁর মা সন্দেহ করেন, মেয়ে অন্য কোনও যুবকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছে।

সেই নিয়ে প্রায়ই মেয়েকে বকাঝকা করতেন ওই মহিলা। আজ দুপুরেও ফোনে কথা বলা নিয়ে মেয়েকে বকাঝকা করেন মা ৷ এরপরেই আত্মীয়ের বাড়িতে চলে যান। বাড়ি ফাঁকা থাকার সুযোগে, বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন অনামিকা। দীর্ঘক্ষণ পর প্রতিবেশীরা দেখতে পেয়ে পরিবারের সদস্যদের খবর দেয়। তাঁরা অনামিকাকে উদ্ধার করে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে এলে চিকিৎসক তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। ঘটনার পর এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

অন্যদিকে ক্যানিংয়ের ডাবু এলাকার অষ্টম শ্রেণীর এক ছাত্রী পুরবি নস্কর (১৪) গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী হয়েছে। দেহ দু’টি ক্যানিং থানার পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য নিয়ে গিয়েছে।

First published: 06:00:04 PM Oct 17, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर