• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • রণক্ষেত্র বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়, পড়ুয়াদের ভাঙচুর, পুলিশের লাঠি

রণক্ষেত্র বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়, পড়ুয়াদের ভাঙচুর, পুলিশের লাঠি

রণক্ষেত্রের চেহারা নিল বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস।  বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ঢুকে ভাঙচুর চালায় এসএফআই সমর্থকরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে এসএফআই সমর্থকদের ওপর লাঠিচার্জ করে পুলিশ। নির্ভুল ফল প্রকাশ ও পরীক্ষা পিছনোর দাবিতে আন্দোলন চলছে বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ে।

রণক্ষেত্রের চেহারা নিল বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস। বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ঢুকে ভাঙচুর চালায় এসএফআই সমর্থকরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে এসএফআই সমর্থকদের ওপর লাঠিচার্জ করে পুলিশ। নির্ভুল ফল প্রকাশ ও পরীক্ষা পিছনোর দাবিতে আন্দোলন চলছে বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ে।

রণক্ষেত্রের চেহারা নিল বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস। বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ঢুকে ভাঙচুর চালায় এসএফআই সমর্থকরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে এসএফআই সমর্থকদের ওপর লাঠিচার্জ করে পুলিশ। নির্ভুল ফল প্রকাশ ও পরীক্ষা পিছনোর দাবিতে আন্দোলন চলছে বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ে।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #বর্ধমান : রণক্ষেত্রের চেহারা নিল বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস।  বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ঢুকে ভাঙচুর চালায় এসএফআই সমর্থকরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে এসএফআই সমর্থকদের ওপর লাঠিচার্জ করে পুলিশ। নির্ভুল ফল প্রকাশ ও পরীক্ষা পিছনোর দাবিতে আন্দোলন চলছে বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ে।

    অনলাইনে দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষার্থীদের নির্ভুল ফলপ্রকাশ ত্রুটিমুক্ত ফলপ্রকাশ এবং তৃতীয় বর্ষের পরীক্ষা পিছনোর দাবিতে উত্তাল হল বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস। মঙ্গলবার বর্ধমান স্টেশন থেকে মিছিল করে বিশ্ববিদ্যালয়ে যায় এসএফআই ছাত্র সংগঠনের সমর্থকেরা। বিশৃঙ্খলা এড়াতে  বিশ্ববিদ্যালয়ের ২টি গেটই বন্ধ করে দেওয়া হয়। এরপরই রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় বিশ্ববিদ্যালয় চত্ত্বর।

    অভিযোগ, পাঁচিল টপকে বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে ঢুকে তালা ভাঙে বিক্ষোভকারী ছাত্ররা। ছিঁড়ে দেওয়া হয় টিএমসিপির ফ্ল্যাগ। উপাচার্যের ঘরের দিকে যাওয়ার পথে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মীদের সাইকেল ও মোটর সাইকেল ভাঙচুর করা হয়। ভাঙচুর করা হয় ফুলের টব, চেয়ার-টেবিল। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ। বিক্ষোভ ঠেকাতে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। যদিও  সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে পড়ুয়ারা।

     দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষার ফল প্রকাশ না করেই তৃতীয় বর্ষের পরীক্ষার দিন ঘোষণা নিয়ে আগেই অসন্তোষ ছড়িয়েছিল পড়ুয়াদের মধ্যে। শুক্রবার ওয়েবসাইটে দ্বিতীয় বর্ষের ফল প্রকাশ হলেও নানা অসঙ্গতি দেখা যায়। ফলে শনিবার থেকেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে বিশ্ববিদ্যালয় চত্ত্বর। বিশ্ববিদ্যালয়ে শান্তি বজায় রাখতে পুলিশকে আগেই সতর্ক করা হয়েছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ কর্তৃপক্ষ। তবে লাঠিচার্জের কথা জানা নেই বলে দাবি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের৷ এর আগেও দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষার ফল প্রকাশ নিয়ে উত্তাল হয় বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস।

    First published: