corona virus btn
corona virus btn
Loading

মোবাইল ও ব্যাগ নিয়ে যেতে বাধা, কলেজে ভাঙচুর চালাল পরীক্ষার্থীরা !

মোবাইল ও ব্যাগ নিয়ে যেতে বাধা, কলেজে ভাঙচুর চালাল পরীক্ষার্থীরা !

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে হরিহরপাড়া থানার বিশাল পুলিশবাহিনী এসে ঘটনাস্থলে পৌঁছয়।

  • Share this:

#মুর্শিদাবাদ: পরীক্ষা শুরুর আগেই ধুন্ধুমার কাণ্ড বাধল হরিয়ার পাড়া হাজী একে খান কলেজে। শুক্রবার বিএ প্রথম বর্ষের ইংরেজি পরীক্ষা ছিল। কলেজের ভিতরে ব্যাগ রাখাকে কেন্দ্র করে পরীক্ষার্থীদের সঙ্গে কলেজের অধ্যাপক অধ্যাপিকা দের বচসা বাধে। অভিযোগ, পরীক্ষার্থীদের বাধা দিতে গেলে কলেজের অধ্যাপক ও কলেজ কর্মীদের ওপর চড়াও হয় পরীক্ষার্থীরা। ক্লাসরুমে ভাঙচুর চালায় তারা। ঘটনাকে কেন্দ্র করে কলেজে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায়।

পরীক্ষা বাতিল হয়ে যায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে হরিহরপাড়া  থানার বিশাল পুলিশবাহিনী এসে ঘটনাস্থলে পৌঁছয়। হরিয়ার পাড়া হাজী একে খান কলেজে আসন পরে আমতলা যোগেন্দ্র নারায়ণ মহাবিদ্যালয় ছাত্র-ছাত্রীদের। শুক্রবার ছিল বিএ প্রথম বর্ষের ইংরেজি পরীক্ষা। অভিযোগ, ছাত্র-ছাত্রীরা ব্যাগ ও মোবাইল নিয়ে কলেজের ভেতরে ঢুকতে গেলে বাধা দেয় অধ্যাপকরা। কলেজেরই বাইরের বারান্দায় ব্যাগ রেখে ঘরের ভেতরে ঢোকার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয় পরীক্ষার্থীদের।  ছাত্রছাত্রীরা তাতে আপত্তি জানায়। তারা দাবী করতে থাকে যে ব্যাগের ভেতর মোবাইল ফোন রয়েছে যদি হারিয়ে যাই কলেজ কর্তৃপক্ষকে সেই দায় নিতে হবে। কলেজ কর্তৃপক্ষ সেই দায়িত্ব নিতে অস্বীকার করে। শুরু হয় বিশৃঙ্খলা।

অভিযোগ, পরীক্ষার্থীরা জোর করে কলেজের ভেতরে ঢুকতে যায় ব্যাগ নেই। অধ্যাপক অধ্যাপিকারা তাদের সঙ্গে হাতাহাতি হয়। কলেজের ভেতর ঢুকে চেয়ার টেবিল ভাঙচুর করে বলেও অভিযোগ। তারপরেই ছাত্র-ছাত্রীরা ব্যাগ নিয়ে না ঢুকতে দিলে পরীক্ষা দেবে না বলে জানিয়ে দেয়। শুরু হয় বচসা , হাতাহাতি। ক্লাস রুমের ভেতরে ঢুকেও চেয়ার-টেবিল ভাঙচুর করে বলে অভিযোগ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাচ্ছে দেখে কলেজে আসেন  জেলা সভাধিপতি মোশারফ হোসেন।  অথচ আগে থেকে কোনও কিছু না জানিয়েই ব্যাগের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে কলেজ কর্তৃপক্ষ।

কলেজের টিচার ইনচার্জ চন্দ্রানী পাল বলেন, ‘ক্লাসের ভিতর ব্যাগ ও মোবাইলে নিষেধাজ্ঞা করায় ছাত্র-ছাত্রীরা গন্ডগোল করে। পরীক্ষা দিতে রাজি হয় নি। সহানুভূতির সঙ্গে চেয়েছিলাম পরীক্ষাটা হোক। কিন্তু পরীক্ষার্থীরা তা মেনে নেয়নি।’’ সভাধিপতি মোশারফ হোসেন বলেন, ‘‘বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছি। পরীক্ষা যাতে ঠিক সময়ে আবার নেওয়া যায় তার জন্য অনুরোধ করেছি।’’

Pranab Kumar Banerjee

First published: February 8, 2020, 8:46 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर