করোনায় কাঁপছে দেশ, মাছি গলতে দেওয়া হচ্ছে না বীরভূম-ঝাড়খণ্ড সীমান্তে

করোনায় কাঁপছে দেশ, মাছি গলতে দেওয়া হচ্ছে না বীরভূম-ঝাড়খণ্ড সীমান্তে
করোনা রুখতে কড়া নজরদারি বীরভূম-ঝাড়খণ্ড সীমান্তে

শুধু মহম্মদবাজারই নয় সিউড়ি, রাজনগর, লোকপুর, খয়রাশোল, কাঁকড়তলা, মল্লারপুর, রামপুরহাট, নলহাটি, মুরারই এলাকাতেও ঝাড়খন্ড সীমানায় নজরদারি চলছে। সেখানে ঝাড়খন্ড থেকে বীরভূমে আসা প্রত্যেকটি বাস ট্রাক ও প্রাইভেট গাড়িতে থাকা ব্যক্তিদের শারীরিক পরীক্ষা করা হচ্ছে এবং প্রত্যেককে সতর্ক করা হচ্ছে।

  • Share this:

#বীরভূমঃ করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রুখতে পশ্চিমবঙ্গ ও ঝাড়খণ্ডের প্রতিটি সীমান্তে নজরদারি চালাচ্ছে স্বাস্থ্য দপ্তর। বীরভূম ঝাড়খন্ড সীমান্তের প্রত্যেকটি রাস্তায় সকাল থেকেই নজরদারি চালাচ্ছে বীরভূম জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর ও বীরভূম জেলা পুলিশ। বীরভূমের মহম্মদবাজারের ছাগলাকুরি বর্ডারে সকাল থেকেই নজরদারি চালালো হচ্ছে।

শুধু মহম্মদবাজারই নয় সিউড়ি,  রাজনগর,  লোকপুর,  খয়রাশোল,  কাঁকড়তলা,  মল্লারপুর,  রামপুরহাট,  নলহাটি,  মুরারই এলাকাতেও ঝাড়খন্ড সীমানায় নজরদারি চলছে।  সেখানে ঝাড়খন্ড থেকে বীরভূমে আসা প্রত্যেকটি বাস ট্রাক ও প্রাইভেট গাড়িতে থাকা ব্যক্তিদের শারীরিক পরীক্ষা করা হচ্ছে এবং প্রত্যেককে সতর্ক করা হচ্ছে। কোন উপসর্গ দেখা গেলেই স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে যোগাযোগ করার জন্য।

অন্য দিকে বীরভূম থেকে ঝাড়খন্ড গামী যানবাহনেও চলছে একই রকমের স্বাস্থ্য পরীক্ষা। স্বাস্থ্য কর্মী ও পুলিশদের যথেষ্ট সতর্কতার সঙ্গে এই কাজ করছেন স্বাস্থ্য দপ্তরের কর্মীদের হাতে রয়েছে গ্লাভস মুখে মাস্ক অন্য দিকে পুলিশকর্মীদের দেওয়া হয়েছে মাস্ক। কোনও ব্যক্তির জ্বর বা সর্দিকাশির উপসর্গ দেখা দিলে ওই ব্যক্তির নাম এবং মোবাইল নাম্বার নথিভুক্ত করে রাখছে স্বাস্থ্য দপ্তরের কর্মীরা,  জানা গিয়েছে কয়েকদিন পরপর ওই ব্যক্তির সঙ্গে যোগাযোগ করা হবে।

কোনও রকম অসুবিধা বুঝলেই স্বাস্থ্যকর্মীরা ওই ব্যক্তির বাড়ি গিয়ে তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করবেন। করোনা সতর্কতার যে সব রকমের পদক্ষেপ নিয়েছে বীরভূম জেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য দফতর।

First published: March 14, 2020, 5:53 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर