corona virus btn
corona virus btn
Loading

কালনায় সাইরেন বাজিয়ে সন্ধে থেকে সকাল পর্যন্ত কঠোর লকডাউন ঘোষনা

কালনায় সাইরেন বাজিয়ে সন্ধে থেকে সকাল পর্যন্ত কঠোর লকডাউন ঘোষনা

করোনা ঠেকাতে এবার কার্ফু জারি হতে চলেছে কালনা শহরে। আগামী শনিবার শুরু হবে লকডাউন। সন্ধ্যে ৭ টা থেকে সকাল ৬ টা পর্যন্ত কালনা শহরে এই লকডাউন পালন করা হবে

  • Share this:

#কলকাতা: করোনা ঠেকাতে এবার কার্ফু জারি হতে চলেছে  কালনা শহরে। আগামী শনিবার শুরু হবে  লকডাউন। সন্ধ্যে ৭ টা থেকে সকাল ৬ টা পর্যন্ত কালনা শহরে এই লকডাউন পালন করা হবে। এই সময় সব দোকানপাট বন্ধ থাকবে। শুধুমাত্র এটিএম, ওষুধের দোকান ও ডাক্তারের চেম্বার কার্ফুর আওতার বাইরে থাকবে।

কালনার মহকুমা শাসক সুমন সৌরভ মোহান্তি বলেন, '' কড়াভাবে লকডাউন পালন করা হবে। মিলিটারি ধাঁচে সন্ধে সাড়ে ছটায় পুলিশ ও প্রশাসনের পক্ষ থেকে সাইরেন বাজানো হবে। ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানগুলিকে সতর্ক করতেই এই সাইরেন বাজানো হবে। সন্ধে ৭টার মধ্যে সব দোকান বাজার বন্ধ করা নিশ্চিত করতে হবে।'' এই নিয়মের অন্যথা হলে সংশ্লিষ্ট দোকান বা প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে কড়া আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মহকুমা শাসক।

কালনা মহকুমা জুড়ে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে। কন্টেইনমেন্ট জোনের ভেতরে থাকায় কালনা আদালত ও মহকুমা শাসকের অফিসের কাজকর্ম বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। কালনার সরকারি বাস ডিপোতে এক কর্মীর শরীরে করোনা সংক্রমণ মিলেছে। সংক্রমণে রাশ টানতে মঙ্গলবার পুলিশ, প্রশাসনিক আধিকারিক, পুরসভা ও ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের নিয়ে বৈঠকে বসেন মহকুমা শাসক। এরপরই তিনি শনিবার থেকে আগামী ১৪ দিন কালনা শহরে সন্ধে ৭টা থেকে সকাল ৬ টা পর্যন্ত পুরোপুরি লকডাউনের কথা ঘোষণা করেন।

মহকুমা শাসক জানান, সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত দোকানপাট খোলা রাখা যাবে। তারপর সব বন্ধ করতে হবে। এই সময়ে ফেরি চলাচলও বন্ধ থাকবে।''  কালনা ১ ও ২ নম্বর ব্লককেও  লকডাউনের আওতায় আনার ভাবনা-চিন্তা চলছে বলে জেলা প্রশাসন সূত্রে খবর মিলেছে।

মহকুমা শাসক জানান, '' করোনাকে একেবারেই অবহেলা করা যাবে না। বাড়ির বাইরে পা না রাখাই ভালো। নিতান্ত প্রয়োজনে বাইরে বের হতে হলে মাস্ক  ব্যবহার বাধ্যতামূলক। সেই সঙ্গে স্যানিটাইজার সঙ্গে রাখতে হবে। মাস্ক ছাড়া কাউকে দোকানে ঢুকতে দেওয়া যাবে না। মাস্ক  ব্যবহার বাধ্যতামূলক করতে  ব্যবসায়ীদের ব্যাপক প্রচার চালাতে বলা হয়েছে। সেই সঙ্গে অবশ্যই সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে।  লকডাউন কঠোরভাবে নিশ্চিত করতে  পুলিশ ও প্রশাসন যৌথ অভিযান চালাবে।''

SARADINDU GHOSH

Published by: Rukmini Mazumder
First published: July 17, 2020, 12:22 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर