নন্দীগ্রামেই বিপত্তি! হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ল তৃণমূলের মঞ্চ, ধরাশায়ী নেতারা

নন্দীগ্রামেই বিপত্তি! হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ল তৃণমূলের মঞ্চ, ধরাশায়ী নেতারা

নন্দীগ্রামের সভায় বক্তব্য় রাখছেন তৃণমূল নেতা পীযূষ ভুঁইয়া৷

তৃণমূলের স্থানীয় নেতৃত্ব অবশ্য এই ঘটনাকে গুরুত্ব দিতে নারাজ৷ তাঁরা বলছেন, অতিরিক্ত ভারেই মঞ্চ ভেঙে পড়েছে৷

  • Share this:

#নন্দীগ্রাম: শুভেন্দু অধিকারীর খাসতালুক৷ সেখানেই এবার শক্তিপরীক্ষা দিতে হবে তৃণমূলকে৷ এখন থেকেই তার প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে দল৷ কিন্তু শুরুতেই বিপত্তি৷ তৃণমূলের সভার মাঝেই মঙ্গলবার নন্দীগ্রামে ভেঙে পড়ল মঞ্চ৷ যার জেরে পড়ে গেলেন মঞ্চে উপস্থিত সব নেতানেত্রীরাই৷

সব সরকারি পদ ছাড়লেও শুভেন্দু অধিকারী এখনও নন্দীগ্রামের বিধায়ক৷ শুভেন্দুর দল ছাড়ার সম্ভাবনা বাড়তেই নন্দীগ্রাম সহ গোটা পূর্ব মেদিনীপুর জেলাতেই নিজেদের শক্তি যাচাই করে নিচ্ছে তৃণমূল৷ কারা শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে রয়েছেন, আর কারাই বা দলের সঙ্গে থাকতে চান, সেটা বুঝে নেওয়া লক্ষ্য৷ সেই উদ্দেশ্যেই এ দিন নন্দীগ্রামে দলীয় সভার ডাক দেওয়া৷ সেখানে উপস্থিত তৃণমূলের নেতানেত্রীরা বোঝানোর চেষ্টা করেন, তাঁরা দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গেই রয়েছেন৷

কিন্তু এলাকার প্রবীণ নেতা পীযূষ ভুঁইয়া মঞ্চে উঠে বক্তব্য রাখার সময়ই বিপত্তি৷ হঠাৎই হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ে মঞ্চ৷ কেউ কিছু বুঝে ওঠার আগেই মঞ্চে উপস্থিত প্রায় সবাই একে অন্যের ঘাড়ে পড়ে যান৷ পীযূষ বাবু নিজেও ধরাশায়ী হন৷

তৃণমূলের স্থানীয় নেতৃত্ব অবশ্য এই ঘটনাকে গুরুত্ব দিতে নারাজ৷ তাঁরা বলছেন, অতিরিক্ত ভারেই মঞ্চ ভেঙে পড়েছে৷ এ বিষয়ে শুভেন্দু ঘনিষ্ঠ নেতাদের কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি৷

শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে দলের দূরত্ব তৈরি হওয়ার পরই নন্দীগ্রামে শুভেন্দু ঘনিষ্ঠ নেতা মেঘনাদ পালকে ব্লক সভাপতির পদ থেকে সরিয়ে দিয়েছে দল৷ আবার সোমবারই সেখানে শুভেন্দু অধিকারীর নতুন অফিস খুলেছেন তাঁর অনুগামীরা৷ শুভেন্দু মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফা দেওয়ার পরই নন্দীগ্রামে তৃণমূলের একাধিক কার্যালয়ে হামলার অভিযোগ উঠেছিল বিজেপি-র বিরুদ্ধে৷ সবমিলিয়ে শুভেন্দু এবং তাঁর অনুগামীদের ছাড়াই নন্দীগ্রামে এখন সম্মানের লড়াই তৃণমূলের৷

Sujit Bhowmik

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

লেটেস্ট খবর