Home /News /south-bengal /
‘‘ মানুষ হিসেবেও ‘ মহানায়ক ’ যে কত বড় মাপের, সেটাই দেখাতে চেয়েছি ছবিতে ......’’

‘‘ মানুষ হিসেবেও ‘ মহানায়ক ’ যে কত বড় মাপের, সেটাই দেখাতে চেয়েছি ছবিতে ......’’

এখনও পর্যন্ত মহানায়ককে নিয়ে সেভাবে কোনও বায়োপিক তৈরিও হয়নি বাংলা ইন্ডাস্ট্রিতে ৷ কিন্তু সেই কাজেই এবার হাত দিয়েছেন পরিচালক প্রবীর রায় ৷

  • Share this:

    #কলকাতা:  উত্তম কুমার ৷ বাংলার ফিল্ম জগৎ  যাঁকে ‘মহানায়ক’-এর তকমা দিয়েছে ৷ সেই সম্মান আজন্মের ৷ আরও একটা শতাব্দী গড়িয়ে গেলেও হয়তো তাঁর সেই সিংহাসনে বসার অধিকার কেউই পাবেন না ৷

    কিংবদন্তী মানুষ সমাজের সব ক্ষেত্রেই রয়েছেন ৷ কিন্তু যতদিন বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি থাকবে, ততদিন প্রকৃত অর্থে ‘কিংবদন্তী’ এবং ‘মহানায়ক’ একজনকেই বোঝাবে, তিনি উত্তম কুমার ৷ তাঁর ভুবনভোলানো হাসি, তাঁর অভিনয়ের দক্ষতা, তাঁর ব্যক্তিত্ব , চিরকালই মুগ্ধ করেছে বাংলার মানুষকে ৷ স্বয়ং সত্যজিৎ রায় বলে গিয়েছেন, উত্তম কুমারকে ঘিরে একটা ইন্ডাস্ট্রি তিন দশক ধরে চলেছে ৷ গোটা বিশ্বে কোথাও এমন নজির নেই ৷  সেই মহানায়ককে নিয়ে ছবি তৈরি করা সহজ কাজ নয় ৷ এখনও পর্যন্ত মহানায়ককে নিয়ে সেভাবে কোনও বায়োপিক তৈরিও হয়নি বাংলা ইন্ডাস্ট্রিতে ৷ কিন্তু সেই কাজেই এবার হাত দিয়েছেন পরিচালক প্রবীর রায় ৷

    হঠাৎ উত্তম কুমারকে নিয়ে ছবি কেন ?  পরিচালক প্রবীর রায়ের কথায়, ‘‘ ৩৬ বছর পরেও উত্তম কুমার একইরকম ‘মেগাস্টার’ ৷ কিন্তু তাঁর উপর প্রামাণ্য কোনও কাজ হয়নি বাংলা ইন্ডাস্ট্রিতে ৷ উনি ছিলেন একাধারে অভিনেতা, প্রযোজক, পরিচালক, সঙ্গীত পরিচালক এবং টেকনিশিয়ান ৷ একটা ইন্ডাস্ট্রি ওনাকে ঘিরে তিন দশক ধরে চলেছে ৷ আমি আট বছর উত্তম কুমারকে যা দেখেছি এবং সবাই আমরা  ওঁর সম্পর্কে যা জানি তার উপরেই একটা ছবি বানানোর ইচ্ছে ছিল আমার ৷ ছবির শ্যুটিং শুরু হয়ে গিয়েছে ৷ উত্তম কুমার কত বড় অভিনেতা এবং মানুষ ছিলেন, সেটা এই ছবির মাধ্যমে ফুটিয়ে তোলাই আমার মূল উদ্দেশ্য ৷ ’’

    Jete Nahi Dibo

    উত্তম কুমার প্রয়াত হওয়ার পর ১৯৮০ সালেই দুরদর্শনের জন্য একটি ডকুমেন্টারি তৈরি করেছিল প্রবীরবাবু ৷ যার নামও ছিল ‘যেতে নাহি দিব ’ ৷ পার্থপ্রতিম চৌধুরির পরিচালনা ও প্রবীর রায়ের প্রযোজনায় দিল্লি দুরদর্শন থেকে বিশেষ অনুমতি আনিয়ে সেই কাজটি করা হয়েছিল ৷ কিন্তু এবার আর ডকুমেন্টারি নয়, উত্তম কুমারকে নিয়ে পূর্ণাঙ্গ দৈর্ঘ্যের ছবি তৈরির কাজেই হাত দিয়েছেন প্রবীরবাবু ৷ এই ছবিতে যারা অভিনয় করছেন, তাঁরা অধিকাংশই তরুণ অভিনেতা ৷ তাই তরুণ প্রজন্মকে নিয়ে ‘মহানায়ক’-এর ছবি বানানোটা যে যথেষ্ট চ্যালেঞ্জ, তা মেনেও নিয়েছেন পরিচালক  ৷  উত্তম কুমারের পুরো জীবন নিয়ে একটা ছবি বানানোর দীর্ঘ ইচ্ছে তাঁর ৷ সেই কাজেই এবার নেমে পড়েছেন প্রবীর রায় ৷ পরিচালকের মতে, ‘‘মহানায়কের জীবনের কমপ্লিকেটেড জিনিসগুলো দেখিয়ে ব্যবসা করা হচ্ছে আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতে ৷ আমি কিন্তু সেপথে না হেঁটে ওঁর পুরো লাইফ হিস্ট্রি দেখাতে চাই ৷ সেখানে উত্তম কুমারের প্রথম ছবিগুলি ফ্লপ করা থেকে শুরু করে সুচিত্রা সেনের সঙ্গে  তাঁর অভিনয়ে মেলবন্ধন , সাবিত্রি চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে যে মেলবন্ধন ,  টেকনিশিয়ান্সদের জন্য ওঁর যে বিশাল কন্ট্রিবিউশন, সেগুলোই আমার এই ছবিতে দেখানোর চেষ্টা করেছি ৷  ১৫ থেকে ১৮ দিনের শ্যুটিংয়েই কাজটা করে ফেলতে চাইছি ৷ আশা করি সবকিছু ঠিকঠাক চললে এবছর ডিসেম্বরেই মুক্তি পাবে ছবিটি ৷’’

    ছবিতে প্রবীর রায়ের পরিচালনার পাশাপাশি চিত্রনাট্য ও সংলাপ লিখেছেন অশোক রায় ৷  অভিনয় করছেন সুদীপ সরকার, স্বস্তিকা দত্ত , শকুন্তলা বড়ুয়া, দেবরাজ রায়, দুলাল লাহিড়ী, মল্লিকা সিনহা , পায়েল রায়, পিউ পাল, প্রিয়াঙ্কা ভট্টাচার্য প্রমুখ ৷

    First published:

    Tags: Bengali Movie, Biopic, Fface, Jete Nahi Dibo, Movie Shooting, Prabir Roy, Uttam Kumar

    পরবর্তী খবর