কংগ্রেসের জমি হারানোর ভয় অধীর গড়ে? ম্যাজিক ফিগার থেকে ৬ আসন দূরে তৃণমূল

মালদা, জলপাইগুড়ির পর গেল গেল রব অধীরের মুর্শিদাবাদ জেলা পরিষদেও।

মালদা, জলপাইগুড়ির পর গেল গেল রব অধীরের মুর্শিদাবাদ জেলা পরিষদেও।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #মুর্শিদাবাদ: মালদা, জলপাইগুড়ির পর গেল গেল রব অধীরের মুর্শিদাবাদ জেলা পরিষদেও। দূরত্ব কমাতে কমাতে তৃণমূল সেখানে ম্যাজিক ফিগার পঁয়ত্রিশ থেকে মাত্র ৬টি আসন দূরে রয়েছে। ভাঙন রোধে উপায় না দেখে এবার পথে অবরোধ আন্দোলনে নেমেছেন স্বয়ং অধীর। এমন পরিস্থিতিতে লক্ষ্মীর ভাঁড়ার শেষ হয়ে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করে অধীরদের জ্বালা বাড়িয়েছেন মানস ভুঁইঞা। উল্টোদিকে, মুর্শিদাবাদে গঙ্গার চেয়ে কংগ্রেসের ভাঙন রোখাই এখন অধীর চৌধুরীর সামনে বড় চ্যালেঞ্জ।

    মুর্শিদাবাদে পঞ্চায়েত ভোটে অনেকটা পিছিয়ে পড়ছিল তৃণমূল। কিন্তু, দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা করে স্লগে তেড়েফুঁড়ে ইনিংস শুরু করেছে জোড়াফুল শিবির। আর তার দাপটে মালদা ও জলপাইগুড়ি হাতছাড়া হয়েছে কংগ্রেস ও বাম শিবিরের। এবার অধীর গড়েও গেল গেল রব।

    মুর্শিদাবাদ জেলা পরিষদে মোট ৭০টি আসন রয়েছে। এক সদস্য বিধায়ক হওয়ায় বর্তমানে ৬৯ জন সদস্য। তার মধ্যে কংগ্রেসের দখলে ছিল ৪২টি, বামেদের ২৭টি ও তৃণমূলের ১টি আসন। দু'দফায় কংগ্রেস থেকে তৃণমূলে যোগ দেয় ১৭ জন। দু'দফায় বামফ্রন্ট থেকে কংগ্রেসের যোগ দেয় ১১ জন। ফলে, এখন তৃণমূলের হাতে রয়েছে ২৯টি আসন। তৃণমূল সূত্রে খবর আরও ২ জন বাম জেলা পরিষষদ সদস্য দলত্যাগে আগ্রহী।

    তৃণমূলের এমন ঝোড়ো ইনিংসে ক্রমশ কংগ্রেসের সঙ্গে তাদের দূরত্ব কমছে। তাতে জমি হারানোর আশঙ্কা কংগ্রেসের অন্দরে। নিজের গড় রক্ষাই চ্যালেঞ্জ এখন অধীর চৌধুরীর সামনে। মঙ্গলবার, খড়গ্রামের সাদল পঞ্চায়েত কংগ্রেস সদস্যকে অপহরণের অভিযোগ তুলে বহরমপুরে পথ অবরোধ করেন প্রদেশ সভাপতি। তৃণমূল শিবিরে অবশ্য কার্যত জয়ের হাসি।

    এমন পরিস্থিতিতে, অধীর চৌধুরী ও আবদুল মান্নানদের পিএসি খোঁচা ফিরিয়ে দিয়েছেন মানস ভুঁইঞা। বিধানসভা ও পঞ্চায়েত ভোটেও অটল ছিল অধীর গড়। কিন্তু, কংগ্রেসের দূর্গে জো়ড়াফুল ফোটানোই এখন জেলায় তৃণমূলের পর্যবেক্ষক তৃণমূলে শুভেন্দু অধিকারীর প্রধান লক্ষ্য। উল্টোদিকে, মুর্শিদাবাদে গঙ্গার চেয়ে কংগ্রেসের ভাঙন রোখাই এখন অধীর চৌধুরীর সামনে বড় চ্যালেঞ্জ।

    First published: