Home /News /south-bengal /
ঘরে ফিরলেন খড়গ্রামের অপহৃত পঞ্চায়েত সদস্য টুম্পা

ঘরে ফিরলেন খড়গ্রামের অপহৃত পঞ্চায়েত সদস্য টুম্পা

চব্বিশ ঘণ্টা টানাপোড়েনের পর ঘরে ফিরলেন টুম্পা মার্জিত।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #বহরমপুর: চব্বিশ ঘণ্টা টানাপোড়েনের পর ঘরে ফিরলেন টুম্পা মার্জিত। সোমবার রাতে তাঁকে অপহরণ করা হয়েছিল বলে অভিযোগ করে মুর্শিদাবাদ জেলা কংগ্রেস। যদিও পুলিশের দাবি অপহরণ নয়, নিজের ইচ্ছেতেই টুম্পা মারজিত আত্মীয়ের বাড়িতে গিয়েছিলেন। তবে টুম্পা মার্জিতের এব্যাপারে কোনও বক্তব্য এখনও পাওয়া যায়নি।

    খড়গ্রামের সাদল পঞ্চায়েতের সদস্য টুম্পা মার্জিত একমাত্র তপশিলি জাতিভুক্ত সদস্য। পঞ্চায়েত প্রধানের পদটিও সংরক্ষিত। সাদল পঞ্চায়েতের প্রধান মাধব মারজিত কয়েকদিন আগেই দুষ্কৃতীদের গুলিতে নিহত হন। আগামি ২৩ তারিখ প্রধান নির্বাচনের দিন ঘোষিত হয়েছে। সেক্ষেত্রে টুম্পা মার্জিত ওই পদের একমাত্র দাবিদার। কংগ্রেসের অভিযোগ, প্রধানের পদ হাতানোর জন্যই তৃণমূল অপহরণের ছক কষে। অভিযোগ অবশ্য অস্বীকার করেছে তৃণমূল কংগ্রেস।

    Tumpa Marjit House

    সোমবার রাতে খড়গ্রামের আমুজুয়া গ্রামে নিজের বাড়ি থেকে অপহৃত হন টুম্পা ৷ তাঁর স্বামী মনোজ মার্জিতের অভিযোগ ছিল সোমবার রাতে বাড়িতে শুয়েছিলেন টুম্পা ৷ সেই সময় আচমকাই তাঁদের বাড়িতে হানা দেয় তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা ৷ তারাই টুম্পাকে অপহরণ করে বলে অভিযোগ ৷ উল্লেখ্য , টুম্পা এক সময় সাদল গ্রামপঞ্চায়েতের প্রধান ছিলেন ৷ ওই গ্রাম পঞ্চায়েতের তপশিলি সদস্য ছিলেন তিনি ৷ তৃণমূল কংগ্রেসের মাধব মার্জিত পঞ্চায়েতে যোগ দেওয়ার পর পঞ্চায়েত প্রধান হন তিনি ৷ মাধব মার্জিত তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেওয়ার পর টুম্পা স্বেচ্ছায় পদ ছেড়ে দেন ৷ কিন্তু এরপর দুষ্কৃতীদের গুলিতে প্রাণ হারান মাধব মার্জিত ৷ শূণ্য পদ পূরণ করতে আগামী ৩০ আগস্ট এই গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান নির্বাচন করা হবে ৷ প্রধান পদে টুম্পা মার্জিত যাতে নির্বাচিত হতে না পারেন সে কারণেই তাঁকে অপহরণ করা হয়েছিল বলে অভিযোগ ৷ এই অপহরণের ঘটনার প্রতিবাদে মঙ্গলবার রাস্তা অবরোধও করা হয় ৷ অবশেষে টুম্পা ঘরের ফিরে আসায় এলাকায় শান্তি ফিরেছে ৷

    First published:

    Tags: Khargram, Panchayet, Tafoshili, Tumpa Marjit, তফশিলি

    পরবর্তী খবর