গৃহবধূর রহস্যমৃত্যু ঘিরে উত্তাল সাগর

গৃহবধূর রহস্যমৃত্যু ঘিরে উত্তাল হয়ে উঠল সাগরের নগেন্দ্রগঞ্জ। মৃতের নাম সুস্মিতা ভূতাই (২৩) ৷

গৃহবধূর রহস্যমৃত্যু ঘিরে উত্তাল হয়ে উঠল সাগরের নগেন্দ্রগঞ্জ। মৃতের নাম সুস্মিতা ভূতাই (২৩) ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #সাগর: গৃহবধূর রহস্যমৃত্যু ঘিরে উত্তাল হয়ে উঠল সাগরের নগেন্দ্রগঞ্জ। মৃতের নাম সুস্মিতা ভূতাই (২৩) ৷ গৃহবধূর স্বামী সুজয়, শ্বশুর ভানু এবং শাশুড়ি আঙুরবালাকে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার থেকে শুক্রবার রাত পর্যন্ত দেহ ঘিরে চলে বিক্ষোভ। তারপর মাঝরাতে পুলিশ দেহ উদ্ধার করে শুক্রবার সকালে কাকদ্বীপে দেহ পাঠায় ময়না তদন্তের জন্য।

    ঘটনার সূত্রপাত বৃহস্পতিবার দুপুরে। অভিযোগ, সুস্মিতাকে পাওয়া যাচ্ছে না বলে স্বামী সুজয় পাশের পাড়ায় সুস্মিতার বাপের বাড়িতে গিয়ে খবর দেয় । তাদের একটি ৪ বছরের ছেলে রয়েছ। সুস্মিতার শ্বশুরবাড়ির পাড়ার লোকজন ওই গৃহবধুর মাকে ফোন করে জানায়, শ্বশুর বাড়ির পানের বরজে তার মেয়ের দেহ পড়ে রয়েছে। তারপরেই বিশাল ঝামেলা শুরু হয় সাগরে।

    সুস্মিতার বাপেরবাড়ির লোকজন দেহ ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় থানার ওসি ও তৃণমূল নেতারা। জানা গিয়েছে, অনুরাধা তলোয়ালের সংগঠন শ্রমজীবী মহিলা সমিতির তরফে এই বিক্ষোভ চলে বৃহস্পতিবার রাত পর্যন্ত।

    সুস্মিতার বাবা মানসিক ভারসাম্যহীন। তার দুই ভাই পঞ্জাবে শ্রমিকের কাজ করে। মেয়ের মৃত্যু সংবাদ পেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন সুস্মিতার মা । তাই এদিন সকালে সুস্মিতার এক খুরতুতো ভাই লক্ষ্ণণ মন্ডল সাগর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। তার দাবি, পারিবারিক অশান্তির জেরে তাঁর বোনকে মারধর করে পানের বরজে লুকিয়ে রাখা হয়েছিল। তিনজনকে ইতিমধ্যেই আটকে জেরা শুরু করেছে পুলিশ।

    First published: