আজ হুগলিতে মুখ্যমন্ত্রীর প্রশাসনিক বৈঠক, উদ্বোধন হবে বহু প্রতীক্ষিত চন্দননগর উড়ালপুল

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়, ছবি: ফাইল চিত্র

আজ হুগলীতে প্রশাসনিক বৈঠকে আসছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যনার্জী। চুঁচুড়ায় জেলাশাসকের নতুন ভবনে প্রশাসনিক বৈঠক করার পর চুঁচুড়া কোর্টের মাঠে জনসভা করবেন মুখ্যমন্ত্রী। বেশ কিছু প্রকল্পের উদ্বোধনের পাশাপাশি সরকারি প্রকল্পের সুবিধা তুলে দেবেন এলাকার মানুষদের হাতে।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #হুগলী: আজ  হুগলীতে প্রশাসনিক বৈঠকে আসছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যনার্জী। চুঁচুড়ায় জেলাশাসকের নতুন ভবনে প্রশাসনিক বৈঠক করার পর চুঁচুড়া কোর্টের মাঠে জনসভা করবেন মুখ্যমন্ত্রী। বেশ কিছু প্রকল্পের উদ্বোধনের পাশাপাশি সরকারি প্রকল্পের সুবিধা তুলে দেবেন এলাকার মানুষদের হাতে। মঞ্চ বাধা থেকে, নিরাপত্তা, মুখ্যমন্ত্রীরর ছবি দিয়ে সাজান, সব প্রস্তুতিই চুড়ান্ত।

    এদিনের সভা মঞ্চ থেকেই মুখ্যমন্ত্রী উদ্বোধন করবেন বহু প্রতিক্ষিত চন্দননগর উড়ালপুল।২০০৫ সালে চন্দননগর কর্পোরেশান বামেদের দখলে থাকার সময় তৎকালীন পুরমন্ত্রী অশোক ভট্টাচার্য উড়ালপুলের শিলান্যাস করে ছিলেন। কিন্তু কাজ শুরু হয়নি।

    তৃণমূল সরকার ক্ষমতায় আসার পর ২০১২ সালে এই উড়ালপুলের কাজ শুরু হয়।কেন্দ্র সরকারের JNNURM প্রকল্পের অধিনে এই উড়ালপুল তৈরীর প্রাথমিক খরচ ধরা ছিল ৩২ কোটি টাকা।যার মধ্যে ৩৫% টাকা রাজ্য সরকারের। উড়ালপুল করতে কিছু জমি কিনতে হয় সরকারকে । তার জন্য শেষ পর্যন্ত উড়ালপুল তৈরির খরচ দাঁড়ায় ৯০ কোটি টাকা। এই উড়ালপুলের জন্য জেলা সদর চুঁচুড়া অথবা চন্দননগর শহরে যানজটের সমস্যা মিটবে । জিটি রোড থেকে সরাসরি রেল লাইনের উপর দিয়ে দিল্লি রোডে অনায়াসে চলে যেতে পারবে ভারী যানবাহন থেকে বড় বাস। যা এত দিন শহরে ঢুকতে বেরোতে গেলে মগড়া নয়ত বৈদ্যবাটি হয়ে যেতে হত। এখন থেকে আর নিত্য যানজটে ভুগতে হবে না শহর বাসীকে।

    First published: