Home /News /south-bengal /
সরকারি সমনে আপনজনহারা ওরা ৪ জন

সরকারি সমনে আপনজনহারা ওরা ৪ জন

Picture Just for representation

Picture Just for representation

আপনজনের থেকে আলাদা হলেও আশ্রয় হারাচ্ছে না সাবিত্রী, চঞ্চল, মালা ও চম্পা ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #দূর্গাপুর: আপনজনের থেকে আলাদা হলেও আশ্রয় হারাচ্ছে না সাবিত্রী, চঞ্চল, মালা ও চম্পা ৷ সরকারি আদেশে বদলে যাচ্ছে ওদের আশ্রয় ৷ নতুন জায়গায় যাতে মানিয়ে নিয়ে অসুবিধা না হয় তার জন্য শুধু একজন সঙ্গীকেই সঙ্গে নেওয়ার অনুমতি পেয়েছে ভিটে হারা চারজন ৷ এত দিনের আশ্রয় আপনজন ছেড়ে যেতে মন খারাপ হলেও সরকারি সমনের সামনে কোনও ওজর-আপত্তিই পাত্তা পায়নি ৷

    সাবিত্রী, চঞ্চল, মালা ও চম্পা, ওরা চার জন অলিম্পিক সার্কাসের পোষা চারটি হাতি ৷ সেন্ট্রাল জু-অথোরিটির নির্দেশে সার্কাসের চারটি হাতিই বনদপ্তরকে ফিরিয়ে দিতে বাধ্য হল অলিম্পিক সার্কাস কর্তৃপক্ষ l সেন্ট্রাল জু-অথোরিটির নিয়ম মেনে রেককনাইজেশন সার্টিফিকেট নবীকরণ করায়নি সার্কাস কর্তৃপক্ষ, তার জেরেই এমন সমন l জানা গিয়েছে, রেককনাইজেশন সার্টিফিকেট রিনিউ করতে প্রতি হাতি পিছু পাঁচ হাজার টাকা লাগবে l

    রবিবার রাতেই দুর্গাপুর বন বিভাগের আধিকারিকরা হাতি চারটি নিয়ে রওনা দেবে উত্তরবঙ্গে l দুটি হাতিকে রাখা হবে নর্থ বেঙ্গল ওয়াইল্ড লাইফ সাফারি পার্কে ও দুটি হাতিকে রাখা হবে জলদাপাড়া রেসকিউ সেন্টারে l

    এই চারটি হাতিরই দেখাশোনা করত মাহুত সেখ কেয়ামুদ্দিন l প্রায় ৩৫ বছর সার্কাসে মাহুতের কাজ করা শেখ কেয়ামুদ্দিনকেও রিহ্যাবিলেটশন দেবে বনদপ্তর l  এই হাতিগুলির সঙ্গে শেখ কেয়ামুদ্দিনকেও নিয়ে যাওয়া হবে বলে আশ্বাস দিয়েছে বন বিভাগ l

    এই চারটি হাতির নাম সাবিত্রী, চঞ্চল, মালা ও চম্পা l প্রত্যেকেই স্ত্রী হাতি l  ২০০৭ সালে ২৯ অগাষ্ট সার্কাসের তাঁবু থেকে পালিয়ে গিয়েছিল সাবিত্রী, পরে ১০ সেপ্টেম্বর বনদপ্তর ও সার্কাসের মাহুত শেখ কেয়ামুদ্দিনের চেষ্টায় ফিরে আসে l

    বাঘ-সিংহ আগেই গিয়েছে এবার হাতিও চলে গেলে সার্কাসের জৌলুসই কমে যাবে মনে করেন সার্কাসের ম্যানেজার ও দর্শকরাও l সব থেকে মন খারাপ মাহুত শেখ কেয়ামুদ্দিনের l রবিবার সন্ধ্যেয় শেষ বারের মতো দুর্গাপুরের অন্ডালের উখরা সার্কাস ময়দানে খেলা দেখাল সাবিত্রীরা l

    First published:

    Tags: Bengali News, Elephant, ETV News Bangla, Forest Department, Olympic Circus, Zoo

    পরবর্তী খবর