Home /News /south-bengal /
এটা করলেই এবার মিলবে আয়করে ছাড়

এটা করলেই এবার মিলবে আয়করে ছাড়

বর্ধমান শহরের রমনাবাগানে জুলজিক্যাল পার্কের বন্যপ্রাণিদের দত্তক দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে বনদফতর ।

  • Share this:

    #বর্ধমান: নিজের ভালুক, কুমির বা হরিণ। চাইলে দেওয়া যাবে পছন্দমতো নামও। বর্ধমান শহরের রমনাবাগানে জুলজিক্যাল পার্কের বন্যপ্রাণিদের দত্তক দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে বনদফতর । বন্যপ্রাণ নিয়ে সচেতনতা বাড়াতেই এই উদ্যোগ। দত্তক নেওয়ার খরচের উপর মিলবে আয়করে ছাড়ও।

    চিড়িয়াখানায় লাফ মেরে হাত থেকে খাবার খাচ্ছে ভালুক। এদিক-ওদিক ঘুরছে হরিণ-পাখি। এসবই হতে পারে আপনার নিজের। দিতে পারেন পোষাকি নামও। কী করে? এদের দত্তক নেওয়ার ব্যবস্থা করেছে বর্ধমান বনদফতর। রাজপরিবারের তরফে রমনাবাগান তৈরি করা হয়। পাশেই গোলাপবাগে ছিল রাজবাড়ির চিড়িয়াখানা। রাজার আমল শেষের পর সেই চিড়িয়াখানার পশুপাখিদের নিয়ে তৈরি হয় রমাবাগান অভয়ারণ্য। এই জুলজিক্যাল পার্ককে বনদফতর মিনি-জু'র তকমা দিয়েছে। আগে চিতা ও রয়েল বেঙ্গল টাইগার থাকলেও এখন পড়ে আছে কুমির, ভালুক, কচ্ছপ, হরিণ ও বিভিন্ন পাখি। নি‍র্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে দত্তক নেওয়া যাবে। পরে দত্তকের মেয়াদ বাড়ানো যাবে।

    দত্তক নেওয়ার বার্ষিক খরচ

    ভালুক - ৪০ হাজার টাকা কুমির - ৪০ হাজার টাকা রেসাস বানর - ২০ হাজার টাকা হরিণ - ১০ হাজার টাকা সারস- ১০ হাজার টাকা ময়ূর- ১০ হাজার টাকা

    দত্তক নেওয়ার জন্য বনদফতর থেকে নির্দিষ্ট ফর্ম তুলে আবেদন করতে হবে। আবেদনপত্র খতিয়ে দেখে প্রাণি দত্তক দেবে বনদফতর। দত্তক থেকে পাওয়া অর্থ জুলজিক্যাল পার্কের উন্নয়নে কাজে লাগানো হবে।

    First published:

    Tags: Animals For Adoption, Burdwan Zoological Park, Forest Department, Tax Concession

    পরবর্তী খবর