দক্ষিণবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

নাটক, আবৃত্তি, সিনেমার শুটিংয়ের জন্য বারে বারে বর্ধমানে এসেছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়

নাটক, আবৃত্তি, সিনেমার শুটিংয়ের জন্য বারে বারে বর্ধমানে এসেছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়

একের পর এক নাটক করেছেন বর্ধমানের সংস্কৃতি লোকমঞ্চে, রেলওয়ে রঙ্গমঞ্চে

  • Share this:

#বর্ধমান: কখনও নাটক, কখনও আবার আবৃত্তির আসর থেকে সিনেমার শুটিং- বারেবারেই পূর্ব বর্ধমান জেলায় এসেছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। বর্ধমানের রানীগঞ্জ বাজার মোড়ে উত্তমকুমারকে সঙ্গে নিয়ে পান কিনে খেয়েছেন। এই প্রবীণ অভিনেতার মৃত্যুর পর সেইসব স্মৃতিচারণ করছেন এই জেলার বাসিন্দারা। বয়স সেভাবে বাধা হয়ে দাঁড়ায়নি কোনওদিনই। যখনই ডাক এসেছে তখনই বর্ধমানে আসতে দ্বিধাবোধ করেননি। তিনি একের পর এক নাটক করেছেন বর্ধমানের সংস্কৃতি লোকমঞ্চে, রেলওয়ে রঙ্গমঞ্চে। বর্ধমান শহরে যোগ দিয়েছেন আবৃত্তির কর্মশালায়। কাজের জন্য এসে অনেকের সঙ্গে সখ্যতা হয়েছে। সেই সম্পর্ক বজায় রেখেছেন শেষ সময় পর্যন্ত।

সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় বর্ধমান এসেছিলেন গত ডিসেম্বরে। বর্ধমান উৎসবের উদ্বোধন করেছিলেন তিনি। পূর্ব বর্ধমানের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক তার অনেক আগে থেকেই। পাঁচ দশক আগে ১৯৬৯ সালে তিনি কালনা সিনে সোসাইটির উদ্বোধন করেছিলেন। তারপর থেকে নিয়মিত সেই সোসাইটির কাজকর্মের খোঁজখবর নিতেন তিনি।

বর্ধমানের সংস্কৃতি লোকমঞ্চে একাধিক বার এসেছিলেন সৌমিত্র বাবু। বর্ধমানে টিকটিকি, তৃতীয় অংক সহ বেশ কিছু নাটকে অভিনয় করেছেন। বর্ধমানের নাট্যশিল্পী সংস্কৃতিমনস্ক ব্যক্তিদের সঙ্গে তাঁর নিয়মিত যোগাযোগ ছিল। বর্ধমানের সাংস্কৃতিক পরিমণ্ডলের ব্যাপারে তাঁদের কাছ থেকে নিয়মিত খোঁজ নিতেন তিনি।

এই জেলায় দামোদরের তীরে একাধিক সিনেমার শুটিং করেছেন তিনি। জামালপুর চকদিঘি জমিদার বাড়িতে বেশ কিছুদিনের ধরে ঘরে-বাইরে শুটিং করেছেন। তিনি শুটিংয়ের প্রয়োজনে এসে পাল্লারোড সেচ বাংলোয় বেশ কয়েক রাত কাটিয়েছেন এই প্রবাদপ্রতিম অভিনেতা।বর্ধমান শহরের সঙ্গে তার যোগাযোগ দীর্ঘদিনের। বীরভূম বাঁকুড়ায় শুটিং করতে গেলে কিছুক্ষণের জন্য বর্ধমানে বিশ্রাম নিয়েছেন অনেকবার। নতুন গাড়ি কিনে বেড়াতে চলে এসেছেন বর্ধমানে। এইসব টুকরো টুকরো নানান স্মৃতি রোমন্থন করছেন বর্ধমান শহরের বাসিন্দারা।

Published by: Ananya Chakraborty
First published: November 16, 2020, 2:04 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर