হাসপাতালে ঢুকে মহিলাদের গোপনাঙ্গ থেকে কপার-টি চুরির চেষ্টা! চাঞ্চল্য...

হাসপাতালে ঢুকে মহিলাদের গোপনাঙ্গ থেকে কপার-টি চুরির চেষ্টা! চাঞ্চল্য...

প্রসূতি বিভাগে ঢুকে মহিলাদের গোপানাঙ্গ থেকে আইইউডি (কপারটি) খুলে নেওয়ার চেষ্টক করে

  • Share this:

#বীরভূম: বীরভূমের সিউড়ী সদর হাসপাতালের প্রসূতি বিভাগে ঢুকে মহিলাদের গোপনাঙ্গ থেকে কপার-টি চুরির চেষ্টার মতো আশ্চর্য ঘটনা ঘটলো বীরভূমের সিউড়ি সদর হাসপাতালে। এই অভিযোগে রবিবার সকালে হাসপাতাল থেকে এক মহিলাকে আটক করে পুলিশ। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃত ওই মহিলার নাম রহিমা খাতুন৷ সে সদাইপুর থানা সিজা গ্রামের বাসিন্দা। ওই মহিলার দাবী সে দাই- মা র কাজ করে। সে এসেছিল তার গ্রামের ভর্তি থাকা মহিলাদের বাচ্চা হওয়ার পর গোপনাঙ্গ পরিষ্কারের কাজে। যদিও হাসপাতালে কর্তব্যরত নার্সদের অভি্যোগ, রবিবার সকালে ওই মহিলা প্রসূতি বিভাগে ঢুকে মহিলাদের গোপানাঙ্গ থেকে আইইউডি (কপারটি) খুলে নেওয়ার চেষ্টা করে। ওয়ার্ডে কর্মরত নার্সরা বিষয়টি দেখতে পেয়ে ওই মহিলাকে বাধা দেয়। এরপরেই ওয়ার্ডে চিৎকার চেঁচামেচি শুরু হয়। খবর দেওয়া হয় পুলিশকে। পুলিশ এসে ওই মহিলাকে আটক করে নিয়ে যায়৷

কিন্তু এই আইইউডি (কপারটি) আসলে কি?

আইইউডি বা Intra-uterine device হলো জরায়ুতে স্থাপন উপযোগী অস্থায়ী অথচ দীর্ঘমেয়াদি গর্ভনিরোধক বা জন্মনিয়ন্ত্রণ উপকরণ। ইংরেজি 'T' অক্ষরের মতো দেখতে এই উপকরণটি পলিইথিলিন প্লাস্টিকের তৈরি। এর দন্ডে তামার সূক্ষ্ম তার ও বাহুতে তামার সূক্ষ্ম পাত জড়ানো থাকে। এতে তামার মোট আয়তন ৩৮০ বর্গ মিলিমিটার। এখান থেকে কপার অণু ধীরে ধীরে জরায়ুতে নিঃসৃত হয়। কপার-টি’র লম্বা দন্ডের সাথে ২টি নাইলনের সুতা লাগানো থাকে। কপারটি ৩৮০-এ খুবই কার্যকরী। কপারটি ৩৮০-এর প্রথম বছরে গর্ভসঞ্চারের সম্ভাবনা শতকরা ০.৭ ভাগ মাত্র। বর্তমানে সরকারি হাসপাতালে প্রসবের পর জন্মনিয়ন্ত্রনের জন্য রোগীর অনুমতি নিয়ে এই কপারটি লাগিয়ে দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন রবিবার ছুটি হয় না এই স্কুলে! জানেন কেন এমন নিয়ম?

First published: January 26, 2020, 4:06 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर