নির্বাচনের লড়াইয়ে স্লোগান চুরি! তৃণমূলের 'খেলা হবে' স্লোগান উঠল বিজেপির বাইক মিছিলে

নির্বাচনের লড়াইয়ে স্লোগান চুরি! তৃণমূলের 'খেলা হবে' স্লোগান উঠল বিজেপির বাইক মিছিলে
বর্ধমানে স্লোগান তরজা।

বিধানসভা নির্বাচনের লড়াইয়ের মাঠে স্লোগান চুরি! বিজেপির বিরুদ্ধে স্লোগান চুরির অভিযোগ তুলল শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস।

  • Share this:

#বর্ধমান: বিধানসভা নির্বাচনের লড়াইয়ের মাঠে স্লোগান চুরি! বিজেপির বিরুদ্ধে স্লোগান চুরির অভিযোগ তুলল শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। রবিবার বর্ধমান শহরের বিভিন্ন এলাকা পরিক্রমা করে বিজেপির বাইক মিছিল। বিজেপির যুব মোর্চার সদস্যরা সেই মিছিল থেকে নানান স্লোগান তোলে। সেখানেই বিজেপি কর্মী নেতাদের মুখে শোনা গেল তৃণমূলের বহু চর্চিত 'খেলা হবে'স্লোগান।

রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের বিভিন্ন জনসভা নানা সহ নানান কর্মসূচিতে উঠছে খেলা হবে স্লোগান। খেলা হবে গানের সঙ্গে এতদিন গলা মেলাচ্ছিলেন তৃণমূলের নেতাকর্মীরা। দলের দাপুটে নেতা বীরভূম জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের মুখেও শোনা গেছে খেলা হবে স্লোগান। বারেবারেই এই খেলা হবে স্লোগানের বিরোধিতা করে এসেছে বিজেপি। তাদের বক্তব্য, খেলা হবে স্লোগানের মধ্য দিয়ে রাজ্যে অশান্তির পরিবেশ তৈরি করতে চাইছে শাসক দল।সেই বিজেপির নেতাকর্মীদের মুখেই এবার শোনা গেল খেলা হবে স্লোগান।

বর্ধমানে রবিবার বিকেলে বাইক মিছিল থেকে স্লোগান তোলা হয় 'দিকে দিকে পদ্ম দিদিমণি জব্দ'। এরপরেই খেলা হবে স্লোগান তোলে তারা। বিজেপির এই স্লোগানকে কটাক্ষ করতে ছাড়ছে না রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। দলের পূর্ব বর্ধমান জেলার মুখপাত্র প্রসেনজিৎ দাস বলেন, এই খেলা হবে শ্লোগানকে নিয়েই আপত্তি তুলেছিল বিজেপি। এর ফলে এলাকায় উত্তেজনা বাড়বে বলে অভিযোগ করেছিল তারা। এখন তারাই আমাদের সেই শ্লোগান ব্যবহার করছে। আমাদের পচে যাওয়া,বাতিল হয়ে যাওয়া নেতাদের নিয়েছে বিজেপি। এখন আমাদের স্লোগান নিতেও তারা দ্বিধা করছে না।


যদিও তৃণমূল কংগ্রেসের স্লোগান চুরির অভিযোগ মানতে নারাজ বিজেপি। বিজেপির যুব মোর্চার পূর্ব বর্ধমান জেলা সভাপতি শুভম নিয়োগী বলেন, খেলা হবে কথা তৃণমূলের নয়। বাংলাদেশের এক নেতা সংক্ষিপ্ত আকারে তা বলেছিলেন। সেটা বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ব্যবহার করছে। দশ বছর ধরে এ রাজ্যের তৃণমূল যে খেলা খেলেছে তা এবার বন্ধ হবে। এবার বাংলার বাসিন্দারা খেলবেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চুপচাপ বসে সেই খেলা দেখতে হবে।

Saradindu Ghosh

Published by:Shubhagata Dey
First published: