শিশিরকে ফোন করেছেন, দাবি সৌমেনের! ডাহা মিথ্যে, পাল্টা কাঁথির সাংসদ

শিশিরকে ফোন করেছেন, দাবি সৌমেনের! ডাহা মিথ্যে, পাল্টা কাঁথির সাংসদ
সৌমেন মহাপাত্র ও শিশির অধিকারী৷

  • Share this:

#কাঁথি: দলের জেলা সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পেয়েই তিনি একাধিকবার শিশির অধিকারীকে একাধিকবার ফোন করেছেন৷ কিন্তু শিশির অধিকারী ফোন ধরেননি৷ এমনই দাবি করলেন সৌমেন মহাপাত্র৷ কিন্তু সেই দাবি নস্যাৎ করে দিয়ে শিশির অধিকারী দাবি করলেন, 'সৌমেন মহাপাত্র ডাহা মিথ্যে কথা বলছেন!'

শিশির অধিকারীকে পূর্ব মেদিনীপুরের জেলা সভাপতির পদ থেকে সরিয়ে সেই জায়গায় দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে সৌমেন মহাপাত্রকে৷ শিশিরবাবুকে করা হয়েছে চেয়ারম্যান৷ জেলার রাজনীতিতে সৌমেনবাবু অধিকারী পরিবারের বিরোধী গোষ্ঠীর বলেই পরিচিত৷

এ দিন সৌমেন মহাপাত্র দাবি করেন, দলের জেলা সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পাওয়ার পরই তিনি শিশির অধিকারীকে বেশ কয়েকবার ফোন করেন৷ দলের সাংগঠনিক বৈঠকে আমন্ত্রণ জানানোর জন্যই তিনি শিশিরবাবুকে ফোন করেছিলেন বলে দাবি করেন সৌমেন মহাপাত্র৷ তিনি এমনও দাবি করেন, শিশিরবাবুই জেলায় তাঁদের অভিভাবক৷ ফলে তাঁর সঙ্গে আলোচনা করেই তিনি সব সিদ্ধান্ত নেবেন৷ সৌমেনবাবু বলেন, 'আমি ওনার সঙ্গে কথা বলব৷ উনি তো চেয়ারম্যান আছেন, আমরা ওনার নেতৃত্বেই কাজ করছেন৷ গতকাল দুপুরে ফোন করেছিলাম৷ কিন্তু উনি হয়তো বিশ্রাম নিচ্ছিলেন বলে ফোন ধরতে পারেননি৷ ওনার সঙ্গে আমার ঠিক যোগাযোগ হয়ে যাবে৷ উনি অসুস্থ ছিলেন, কিন্তু উনিই সর্বময় নেতৃত্ব৷ আমরা ওনার কাছে স্নেহের পাত্র৷ আমার ওনার উপরে পূর্ণ আস্থা আছে৷'


সৌমেন অধিকারী এ হেন দাবি করলেও শিশির অধিকারী সটান তাঁর দাবি নস্যাৎ করেছেন৷ কাঁথির তৃণমূল সাংসদ বলেন, 'সকাল থেকে উঠে অন্তত একশোজনের সঙ্গে দেখা করেছি৷ ফোনে কথা বলেছি৷ উনি আমাকে কোনও করেননি৷ সম্পূর্ণ মিথ্যে কথা বলছেন৷' ক্ষোভের সুরে প্রবীণ সাংসদ আরও বলেন, 'গত একবছরের মধ্যে সৌমেনের সঙ্গে কথা হয়নি৷ চেয়ারম্যান হিসেবে নিযুক্তির কোনও কাগজ আমি পাইনি৷ দল ঘোষণা করে থাকলে ভাল৷ আমাকে কী কাজ করতে হবে বলুক, করে দেব৷ আগে পরামর্শ চাক, তার পর দেব৷'

শুভেন্দু অধিকারীর বিজেপি-তে যোগদানের জেরে প্রথমে শিশির অধিকারীকে দিঘা শঙ্করপুর উন্নয়ন পর্ষদের চেয়ারম্যানের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়৷ তার পরই তাঁকে জেলা সভাপতির পদ থেকেও অপসারিত করে দল৷ যদিও শিশির অধিকারী পাল্টা বিজেপি-তে যোগদানের জল্পনা জিইয়ে রেখে জানিয়েছেন, সবার সঙ্গে আলোচনা করেই যা সিদ্ধান্ত নেওয়ার নেবেন তিনি৷ কোনও কিছুই অসম্ভব নয় বলেও জানিয়েছেন শিশির৷

আগামী সোমবার নন্দীগ্রামে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভা রয়েছে৷ সেই সভাতেও শিশির অধিকারীর হাজির থাকার সম্ভাবনা বেশ কম৷

Sujit Bhowmik
Published by:Debamoy Ghosh
First published: