• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • শীলভদ্র দত্তের মান ভাঙাতে গেলেন পিকে-র দুই দূত, সিদ্ধান্তে অনড় তৃণমূল বিধায়ক

শীলভদ্র দত্তের মান ভাঙাতে গেলেন পিকে-র দুই দূত, সিদ্ধান্তে অনড় তৃণমূল বিধায়ক

ব্যারাকপুরের তৃণমূল বিধায়ক শীলভদ্র দত্ত৷ Photo-Facebook

ব্যারাকপুরের তৃণমূল বিধায়ক শীলভদ্র দত্ত৷ Photo-Facebook

তিনি ভোটে না দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়ায় দলের যে নেতারা তাঁকে কটাক্ষ করেছেন, তাঁদেরকেও জবাব দিয়েছেন শীলভদ্র দত্ত৷

  • Share this:

#ব্যারাকপুর: শুভেন্দু অধিকারী মন্ত্রিত্ব ছাড়ার পরই ব্যারাকপুরের বিধায়ক শীলভদ্র দত্তের মান ভাঙাতে উদ্যোগী হল তৃণমূল কংগ্রেস৷ তবে কোনও দলীয় নেতা নন, এ দিন ব্যারাকপুরের বিধায়কের কাছে পৌঁছন টিন পিকে-র দুই সদস্য৷ যদিও বর্ষীয়ান তৃণমূল বিধায়ক তাঁদেরকেও জানিয়ে দিয়েছেন, আগামী বিধানসভা নির্বাচনে তিনি লড়বেন না৷ ফলে নিজের সিদ্ধান্তেই অনড় থাকছেন তিনি৷ শুধু তাই নয়, দলীয় নেতারা কেউ না এসে টিম পিকে-র দুই সদস্য তাঁর সঙ্গে দেখা করতে আসা নিয়েও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ব্যারাকপুরের বিধায়ক৷

এ দিনের বৈঠক প্রসঙ্গে শীলভদ্র দত্ত বলেন, 'ওঁরা জানতে চাইল কী সমস্যা৷ আমি আগেও যেটা প্রকাশ্যে বলেছি, সেটাই বললাম৷ তার থেকে পিছিয়ে আসার জায়গা নেই আর সেরকম কারও ঘটেনি৷' প্রশান্ত কিশোর এবং তাঁর দলের কাজকর্ম নিয়েও আগেও আপত্তি জানিয়েছেন শীলভদ্র দত্ত৷ এ দিনও তিনি বলেন, 'পিকে-র দলের কাজকর্ম আমার পছন্দ হয়নি৷ দলের নেতারা এলে অনেক ভাল হত৷ তবে এটা তাঁদের ব্যাপার৷ দল যাঁদের দায়িত্ব দিয়েছে, তাঁরাই এসেছেন৷' একই সঙ্গে অবশ্য তিনি স্পষ্ট করে দিয়েছেন, দলের নেতারা এলেও তাঁর সিদ্ধান্ত থেকে তিনি সরবেন না৷ ব্যারাকপুরের বিধায়কের দাবি, তাঁর কোথায় সমস্যা হচ্ছে সে সম্পর্কে দলীয় নেতৃত্বকে অনেক দিন ধরেই জানিয়ে আসছিলেন৷ তাঁর কথায়, 'এই আসাটা আরও আগে হলে ভাল হত৷'

পাশাপাশি তিনি ভোটে না দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়ায় দলের যে নেতারা তাঁকে কটাক্ষ করেছেন, তাঁদেরকেও জবাব দিয়েছেন শীলভদ্র দত্ত৷ তিনি বলেন, 'কেউ কেউ আমায় ইঁদুর, বাঁদর বলছে৷ ইঁদুরের মতো নাকি আমি গর্তে ঢুকে যাচ্ছি৷ ইঁদুরের তো জাহাজ ডুবিয়ে দেওয়ারও ক্ষমতা থাকে৷ তাহলে কি যাঁরা আমাকে ইঁদুর বলছেন তাঁদের মতে তৃণমূলের জাহাজ ডুবছে? আমি তো তা মনে করি না৷ আমার মতে তৃণমূল আগামী নির্বাচনে ২০০-র বেশি আসনে জয়লাভ করবে৷'

যদিও উত্তর চব্বিশ পরগণায় তৃণমূলের জেলা সভাপতি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক জানিয়েছেন, এ দিনের বৈঠকের বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না৷ শীলভদ্র দত্ত বরাবরই মুকুল রায়ের ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত৷ মুকুলবাবু তৃণমূল ছাড়ার পর থেকেই দলে অনেকটা কোণঠাসা হয়ে পড়েছেন বর্ষীয়ান এই বিধায়ক৷ সম্প্রতি তিনি জানিয়ে দেন, আগামী নির্বাচনে আর লড়বেন না তিনি৷

Rajorshi Roy

Published by:Debamoy Ghosh
First published: