corona virus btn
corona virus btn
Loading

বাজার থেকে উধাও, করোনা মোকাবিলায় রাঢ়ভূমে স্যানিটাইজার জোগান দেবে সিধু কানহু বিরসার পড়ুয়ারা

বাজার থেকে উধাও, করোনা মোকাবিলায় রাঢ়ভূমে স্যানিটাইজার জোগান দেবে সিধু কানহু বিরসার পড়ুয়ারা

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইডলাইন মেনে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেমিস্ট্রি ও বোটানির ল্যাবে স্যানিটাইজার তৈরি হচ্ছে।

  • Share this:

#পুরুলিয়াঃ করোনা ভাইরাস আতঙ্কে বাজারে অমিল স্যানিটাইজার। বিশেষত পুরুলিয়া, বাঁকুড়ার মত জেলাগুলিতে আকাল পড়েছে স্যানিটাইজারের। তাই যোগান সচল রাখতে এবার আসরে নামল পুরুলিয়ার সিধু কানহু বিরসা বিশ্ববিদ্যালয়। মূলত বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইডলাইন মেনে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেমিস্ট্রি ও বোটানির ল্যাবে স্যানিটাইজার তৈরি শুরু করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা। ইতিমধ্যেই পুরুলিয়ার বিভিন্ন অংশে বিশ্ববিদ্যালয়ের তৈরি করা স্যানিটাইজার বিতরনের প্রক্রিয়া শুরু করেছে।

স্যানিটাইজার তৈরীর জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে বিভিন্ন চিকিৎসকদেরও মতামত নিচ্ছে পড়ুয়ারা। এ প্রসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য দীপক কর বলেন " দিনরাত এক করে স্যানিটাইজারের যোগান  সচল রাখতে এই উদ্যোগ নিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা। সবাইকে বিনামূল্যে এই স্যানিটাইজার দেওয়া হচ্ছে।" তবে শুধু স্যানিটাইজার তৈরি নয় জেলার একাধিক গ্রামে করোনা ভাইরাস কী তা জানাতে বিভিন্ন প্রচার মূলক কর্মসূচিও নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের জাতীয় সেবা প্রকল্পের অধীনস্থ ছাত্রছাত্রীরা। একইসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিপিএল আওতাভুক্ত পড়ুয়াদের চলতি সেমিস্টারের সকল ফি  দিতে হবে না বলেও জানিয়েছেন উপাচার্য দীপক কর।

দেশে ক্রমশই বাড়ছে করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা। এই মুহূর্তে দেশজুড়ে আক্রান্তের সংখ্যা এক হাজারের বেশি। যা কার্যত চিন্তার ছাপ ফেলেছে বিশেষজ্ঞদের মধ্যে। শুধু তাই নয়, রাজ্যে ক্রমশই বাড়ছে করোনাভাইরাস এ আক্রান্তের সংখ্যা। সোমবার পর্যন্ত রাজ্যে আক্রান্ত হয়েছেন ২২ জন। মৃত্যু হয়েছে ২ আক্রান্তের। রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে আতঙ্কিত হয়ে পড়ছেন রাজ্যবাসী। গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই বাজারে অমিল স্যানিটাইজার। বিশেষত পুরুলিয়া বাঁকুড়ার মতো জায়গায় কার্যত স্যানিটাইজার নেই বললে ভুল হবে না। আর তারই যোগান পুরুলিয়া বাঁকুড়ার মতো জায়গায় সচল রাখতে এগিয়ে এসেছে সিধু কানহু বিরসা বিশ্ববিদ্যালয়। ইতিমধ্যেই কয়েক হাজার স্যানিটাইজার শুধুমাত্র পুরুলিয়া জেলাতেই  বিতরণ করা হয়েছে।

স্যানিটাইজার তৈরির পাশাপাশি পুরুলিয়ার প্রত্যন্ত গ্রামগুলোতে করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সচেতনতা তোলার জন্য একাধিক কর্মসূচি নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের জাতীয় সেবা প্রকল্পের ছাত্র-ছাত্রীরা। এ প্রসঙ্গে উপাচার্য দীপক কর জানান, "পুরুলিয়া জেলাতে অনেক প্রত্যন্ত গ্রাম রয়েছে। সেখানে করোনাভাইরাস সম্পর্কে সচেতনতা গড়ে তোলা দরকার। তাই আমাদের ছাত্রছাত্রীরা এই গ্রামগুলিতে গিয়ে প্রচারমূলক কর্মসূচি করছেন।"  অন্যদিকে,  বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে মুখ্যমন্ত্রীর আপৎকালীন ত্রাণ তহবিলে ইতিমধ্যেই দু লক্ষ টাকা আর্থিক অনুদান দেওয়া হয়েছে। তার পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে কয়েকটি বিভাগে অনলাইনে ক্লাস চালু করা হয়েছে।

SOMRAJ BANDOPADHYAY

First published: March 30, 2020, 5:41 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर