একবছরে ৯ জনের মৃত্যু শেওড়াফুলির এই রেলগেটে, এর পিছনে কারণ কী?

শেওড়াফুলির ন’ নম্বর স্পেশাল রেলগেটের কাছে বারবার দুর্ঘটনা।

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Nov 06, 2019 04:33 PM IST
একবছরে ৯ জনের মৃত্যু  শেওড়াফুলির এই রেলগেটে, এর পিছনে কারণ কী?
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Nov 06, 2019 04:33 PM IST

#হাওড়া: শেওড়াফুলির ন’ নম্বর স্পেশাল রেলগেটের কাছে বারবার দুর্ঘটনা। ট্রেন থেকে পড়ে পর-পর দুদিন তিন যাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। আপ লাইনের পাশে রেলের পরিত্যক্ত কোয়র্টারে ধাক্কা লেগেই ঘটছে বিপত্তি। নিউজ 18 বাংলার অন্তর্দতদন্তে ধরা পড়েছে সেই ছবি।

ট্রেনের গায়ে জ্বলজ্বল করছে সতর্কবার্তা...বাইরে ঝুঁকবেন না। কিন্তু কে শোনে কার কথা। হাওড়া ডিভিশনের বেশিরভাগ ট্রেন-ই বাদুরঝোলা। যাত্রীদের দাবি, গত পাঁচ মাস ধরে হাওড়া ডিভিশনের মেনলাইনে সঠিক সময়ে ট্রেন চলছে না। ভিড় বাড়ছে ট্রেনে।  বাড়ছে দুর্ঘটনা।

নিউজ 18 বাংলার অন্তর্তদন্তে পরিষ্কার, দুর্ঘটনার মূলে রেলের এক পরিত্যক্ত কোয়ার্টার।  চার নম্বর প্ল্যাটফর্ম থেকে ট্রেন ছেড়ে বেরনোর কয়েক মিটার দুরত্বেই রয়েছে তালাবন্ধ ভগ্নপ্রায় কোয়ার্টার। এই মূহূর্তে যা মশার আঁতুরঘর।

একেবারে রেললাইন লাগোয়া কোয়ার্টার। ট্রেনের চাকা থেকে কোয়ার্টারের দুরত্ব মেরেকেটে চার ফুট। চাকার উপর বগি থেকে সেই দুরত্ব কমে দাঁড়াচ্ছে  মাত্র দেড় ফুট। এই কোয়ার্টারের দেওয়ালে ধাক্কা লেগেই ছিটকে পড়ে মৃত্যু হচ্ছে যাত্রীদের। ২০১৬ সালে তিনজন।  ২০১৭ ও ২০১৮ সালে ১২ জন। চলতি বছরে এখনও পর্যন্ত ন’জনের মৃত্যু হয়েছে এভাবে।

পর-পর দুর্ঘটনায় রেলের গাফিলতিকেই দায়ী করেছেন যাত্রীরা। পূর্ব রেলের বক্তব্য, তারা বারবারই যাত্রীদের সচেতন করছেন। কিন্তু তাতেও অবস্থার পরিবর্তন হচ্ছে না ৷ যাত্রীদের আটকানো যাচ্ছে না।  হাওড়া ডিভিশনের সঙ্গে বৈঠকে পরিত্যক্ত কোয়ার্টার নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

First published: 04:33:14 PM Nov 06, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर