সাগরের প্লাবিত নদী বাঁধগুলি পরিদর্শনে সেচ দফতরের আধিকারিকরা

ভরা কোটাল ও টানা বৃষ্টিতে সুন্দরবন একাধিক নদী বাঁধ ভেসে গেছে৷

ভরা কোটাল ও টানা বৃষ্টিতে সুন্দরবন একাধিক নদী বাঁধ ভেসে গেছে৷

  • Share this:

    #সাগর: কয়েক দিনের ভরা কোটাল ও টানা বৃষ্টি তে সুন্দরবন এর সমস্ত এলাকা বিধ্বস্ত৷ সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত সাগরদ্বীপের বহু অঞ্চল । দুই দিনে সবথেকে বেশি ক্ষতি হয়েছে সাগরের ফুলবাড়ী, সুমতিনগর, বঙ্কিম নগর, বোটখালি সহ একাধিক এলাকা। এই সমস্থ এলাকায় কোথায়  বাঁধ ভাঙে কথাও বা বাঁধ উপচে নোনা জলে প্লাবিত হয়েছে একের পর এক গ্রামে ভেঙেছে বেশ কিছু কাঁচা বাড়ি ।

    ঘর ছাড়া প্রায় ২৫০ পরিবার কে অন‍্যত্র সরিয়ে নিয়ে এসেছে প্রশাসন। এলাবাসির অভিযোগ বিগত কয়েক বছর বাঁধের মেরামত হয়নি । গত ঘূর্ণিঝড়ে ও এই সমস্ত বাঁধে ব‍্যাপক ক্ষতি হয় । স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি শুধু মাত্র মাটি দিয়ে বাঁধের মেরামত করেছে প্রশাসন।তাদের দাবি অবিলম্বে স্থায়ী বাঁধ করতে হবে । এই পরিস্থিতি তে ভাঙাবাঁধগুলি কে পরিদর্শনে আসেন সেচ দপ্তরের আধিকারিক রা। তিন টি দলে ভাগ হয়ে সেচ দপ্তরে আধিকারিক রা বিভিন্ন অঞ্চল গুলি ঘুরে দেখেন। সাউত ডিভিশনের চিফ ইঞ্জিনিয়ার সঞ্জয় কুণ্ডু বলেন ,খুব তাড়াতাড়ি পাকা বাঁধের কাজ শুরু হবে। সমস্থ ক্ষয়ক্ষতি নিয়ে দপ্তর কে রিপোর্ট দেওয়া হবে। , মাটি দিয়ে বাঁধ মেরামতের কথা কার্যত শিকার করে নেন সাগর বিধায়ক বঙ্কিম হাজরা বলেন , ঘূর্ণিঝড়ের পরে ক্ষতি গ্রস্থ বাঁধের কাজ চলছিল তার ই মধে এই বিপর্যয়ে সাগরে প্রায় ২২ কিলোমিটার সম্পূর্ণ ভাবে ক্ষতি হয়েছে। , আগামী দিনে কত দ্রুত এই বাঁধ স্থায়ী ভাবে নির্মাণ হয় সেই দিকে তাকিয়ে রয়েছে সাগর বাসি।

    Arpan Mondal

    Published by:Debalina Datta
    First published: