১০০ দিনের কাজে মাটি সরাতেই চোখ কপালে সকলের! কী দেখলেন তাঁরা?

১০০ দিনের কাজে মাটি সরাতেই চোখ কপালে সকলের! কী দেখলেন তাঁরা?
  • Share this:

Saradindu Ghosh

#বর্ধমান: একশো দিনের কাজে ক্যানাল সংস্কারের কাজ শুরু হয়েছিল সবে। আবর্জনা সরাতেই বেরিয়ে এল সেটি। ভয়ে পিছিয়ে গেলেন শ্রমিকরা। ঠিক কী বেরল মাটির তলা থেকে, যা দেখে ভয়ে সিঁটিয়ে উঠলেন মহিলা-পুরুষ সকলেই। বেরিয়ে আসে আস্ত একটি মাথার খুলি। তা দেখেই চোখ কপালে ওঠে একশো দিনের কাজে যোগ দেওয়া মজুরদের। খবর পেয়ে আশপাশের গ্রাম থেকে ছুটে আসেন বাসিন্দারা। মাথার খুলি দেখতে ভিড় জমে যায় উৎসাহীদের। কোথায় ঘটল এমন ঘটনা!

পূর্ব বর্ধমান জেলার মাধবডিহি থানার আড়ুই গ্রামে এই ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে মাধবডিহি থানার পুলিশ গিয়ে মাথার খুলিটি উদ্ধার করে নিয়ে যায়। খুলির কাছাকাছি এলাকায় কঙ্কালের বাকি অংশ রয়েছে কিনা তা খোঁজ নিয়ে দেখা হবে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে।

আড়ুই গ্রামের ছোট সেচ ক্যানেলটি আগাছায় ভর্তি হয়ে জল বয়ে নিয়ে যাওয়ার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলেছিল। ক্যানালের গভীরতা বাড়াতে তা সংস্কারের পরিকল্পনা নিয়েছিল স্থানীয় প্রশাসন। একশো দিনের কাজ প্রকল্পে সেই সংস্কারের কাজ মঙ্গলবার শুরু হয়। সেই কাজে যোগ দিতে জব কার্ড প্রাপকরা গিয়েছিলেন। আবর্জনা সরিয়ে মাটি কাটা শুরু হতেই শক্ত কিছু রয়েছে বলে সন্দেহ হয় মজুরদের। এরপর সাবধানে সেই এলাকা খোঁড়া হতেই বেরিয়ে আসে আস্ত একটা মাথার খুলি। তাকে ঘিরে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয় এলাকায়।

মানুষের মাথার খুলি ক্যানালের ধারে কী করে এল তা নিয়ে জোর জল্পনা শুরু হয়েছে। তবে কী নির্জন এই এলাকায় রাতের অন্ধকারে কাউকে খুন করা হয়েছিল, প্রশ্ন তুলছেন বাসিন্দারা। আবার ক্যানালের জলে ডুবে কারও মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে বলেও মত অনেকের। পুলিশ জানিয়েছে, কঙ্কালের বাকি অংশ পাওয়া গেলে বা তার আশপাশে পোশাক বা অন্য কিছু পাওয়া যায় কিনা দেখা হচ্ছে। সে সব মিললে এই মাথার খুলি পুরুষ না মহিলার বা তাঁর কিভাবে মৃত্যু হয়েছিল সে ব্যাপারে একটা ধারণা করা যেতে পারে।

First published: March 3, 2020, 6:08 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर