বিশ্বসেরাদের সঙ্গে এক তালিকায়, আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি কালনার বিজ্ঞানীর

বিশ্বসেরাদের সঙ্গে এক তালিকায়, আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি কালনার বিজ্ঞানীর

Photo-Representative

  • Share this:

#পূর্ব বর্ধমান: জেলার সঙ্গে আরও একটি সাফল্যের পালক যুক্ত হল। আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেলেন এই জেলারই এক কৃতী সন্তান। বিশ্ব সেরা বিজ্ঞানীদের একজন হিসেবে বিশেষ সম্মান পেলেন কালনার সঞ্জীব গঙ্গোপাধ্যায়। বর্তমানে গৌহাটি আইআইটিতে ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত রয়েছেন তিনি।

আমেরিকার স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটি বিশ্ব সেরা বিজ্ঞানীদের একটি তালিকা প্রকাশ করেছে। সেই তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন পূর্ব বর্ধমানের কালনা মহারাজা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র সঞ্জীব গঙ্গোপাধ্যায়। মূলত ইলেকট্রিক্যাল এনার্জি ডিস্ট্রিবিউশন নিয়ে তিনি গবেষণা করেছিলেন। সেই গবেষনার তাঁকে এই স্বীকৃতি এনে দিয়েছে। স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটি বিশ্বের সেরা দুই শতাংশ বিজ্ঞানীর তালিকা প্রকাশ করেছে। সারা পৃথিবীর প্রায় ১ লক্ষ ৫৮ হাজার জন বিজ্ঞানীর নাম রয়েছে সেই তালিকায়। তার মধ্যে ১৪৯৪ জন ভারতীয় বিজ্ঞানী রয়েছেন। তাঁদের সঙ্গেই তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন তিনি।

কালনার বাঘনাপাড়া গ্রামে সঞ্জীববাবুর বাড়ি। ছোটবেলার পড়াশোনা এখানেই। বাঘনাপাড়া হাই স্কুল থেকে মাধ্যমিক পাস করেন। কালনা মহারাজা উচ্চ বিদ্যালয়ে একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণীতে পড়াশোনা করেন। এই স্কুল থেকে উচ্চমাধ্যমিক পাশ করেন 1999 সালে। জয়েন্ট এন্ট্রান্স দিয়ে ওই বছরই ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ার সুযোগ পান। শিবপুর ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ থেকে ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং পাস করেন। ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে যাদবপুর থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। খড়গপুর আইআইটি থেকে পিএইচডি করেন। বর্তমানে গৌহাটি আই আই টির অধ্যাপক তিনি। পাওয়ার সিস্টেম, সফট কম্পিউটিং এবং রিনিউয়েবল এনার্জি পুনর্নবীকরণযোগ্য শক্তি সহ নানা বিষয়ে গবেষনা চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার কালনা মহারাজা হাই স্কুল তাঁদের এই প্রাক্তন ছাত্রকে বিশেষ এই কৃতিত্বের জন্য সংবর্ধনা দেয়। স্কুলের এই উদ্যোগে খুশি সঞ্জীববাবুও। ছাত্র জীবনের নানান কথা তিনি স্মৃতিচারণ করছিলেন বার বার। বর্তমান পড়ুয়াদের আগামী দিনের লক্ষ্য স্থির করে তা পূরণের জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন তিনি। বললেন, পুরস্কারের জন্য কোথাও কোনও দিন আবেদন করিনি। এই সম্মান পেয়ে ভালো লাগছে। এই স্বীকৃতি কাজের ক্ষেত্রে বাড়তি প্রেরণা যোগাবে।

Saradindu Ghosh

Published by:Debalina Datta
First published:
0