দক্ষিণবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

ভোটের আগে বড় চমক,সাঁওতালি মাধ্যম স্কুলগুলিতে ৫০০ শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ SSC-র

ভোটের আগে বড় চমক,সাঁওতালি মাধ্যম স্কুলগুলিতে ৫০০ শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ SSC-র
Representational Image

এই প্রথমবার সাঁওতালি মাধ্যম স্কুলগুলিতে শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হল ৷

  • Share this:

#ঝাড়গ্রাম: ভোটের আগেই সাঁওতালি মাধ্যম স্কুলগুলিতে শিক্ষক নিয়োগ করা হবে । সোমবার এমন বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে রাজ্য। পাশাপাশি শিক্ষক নিয়োগেও জারি হয়েছে নতুন বিধি। মার্চের মধ্যেই রাজ্যের সাঁওতালি মাধ্যম স্কুলগুলির শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়াও শেষ করতে চায় শিক্ষা দফতর।এই সংক্রান্ত বিশদ তথ্য কমিশনের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট westbengalssc.com-এ পাওয়া যাবে বলে জানানো হয়েছে ৷

সোমবারই জারি হল বিজ্ঞপ্তি। এই প্রথমবার সাঁওতালি মাধ্যম স্কুলগুলিতে শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হল ৷ বাঁকুড়া,পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম ও বীরভূমের বেশ কিছু অংশে সাঁওতালি মাধ্যম স্কুল রয়েছে ৷ স্কুল শিক্ষা দফতর সূত্রে খবর, এই স্কুলগুলিতে প্রায় ৫০০ শূন্য পদ রয়েছে ৷ এই পদগুলিতেই শিক্ষক নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ৷

একই সঙ্গে, শিক্ষক নিয়োগের নতুন বিধিও প্রকাশ করেছে স্কুল শিক্ষা দফতর।  থাকছে না ইন্টারভিউ ও ভেরিফিকেশনের মতো সময়সাপেক্ষ প্রক্রিয়া ৷ অ্যাকাডেমিক স্কোরের কোনও জায়গা থাকছে না ৷ টিচার এলিজিবিলিটি টেস্ট বা টেট এবং প্রিলিমিনারি টেস্টের উপরই নির্ভর করেই হবে নিয়োগ ৷ ইংরেজি এবং যে মাধ্যমের স্কুলে শিক্ষকতা করবেন চাকরিপ্রার্থী সেই মাধ্যমেই পরীক্ষা হবে ৷ যত শূন্যপদ, মেধাতালিকায় থাকবে তত নাম ৷ কোনও ওয়েটিং লিস্ট থাকবে না ৷ রাজ্য সরকারের সঙ্গে পরামর্শ করেই নিয়োগ করবে স্কুল সার্ভিস কমিশন ৷ ন্যাশনাল কাউন্সিল ফর টিচার এডুকেশনের (NCTE) নিয়ম মেনে সবক্ষেত্রেই প্রশিক্ষণ বাধ্যতামূলক ৷ চাকরিপ্রার্থীদের প্রাথমিক, উচ্চপ্রাথমিক, মাধ্যমিক বিভাগের জন্য আলাদা করে আবেদন করতে হবে না ৷ একবার আবেদন করলেই শূন্যপদের সংখ্যা অনুযায়ী নিয়োগ করা হবে ৷

উচ্চ প্রাথমিকের নিয়োগ প্রক্রিয়া নিয়ে ইতিমধ্য়েই হাইকোর্টে ধাক্কা খেয়েছে রাজ্য। হাই কোর্টের নির্দেশে খারিজ হয়েছে নিয়োগ প্রক্রিয়া। আদালতের নির্দেশ মেনে আগামী ৪ জানুয়ারি থেকে নতুন করে নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে।

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: December 22, 2020, 8:45 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर