টিফিনের পয়সা বাঁচিয়ে সুন্দরবনের বিধবাদের পাশে দাঁড়াল স্কুল পড়ুয়ারা

সমাজসেবায় অনন্য নজির গড়ল স্কুল পড়ুয়ারা।

Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Feb 20, 2017 08:26 PM IST
টিফিনের পয়সা বাঁচিয়ে সুন্দরবনের বিধবাদের পাশে দাঁড়াল স্কুল পড়ুয়ারা
Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Feb 20, 2017 08:26 PM IST

#সুন্দরবন: সমাজসেবায় অনন্য নজির গড়ল স্কুল পড়ুয়ারা। টিফিনের পয়সা বাঁচিয়ে সুন্দরবনের বাঘ-কুমীরের আক্রমণের শিকার পরিবারের হাতে মশারি ও নতুন জামা কাপড় তুলে দিল পড়ুয়ারা। এমনই কৃতিত্বের কাজ করে সকলকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে দক্ষিণ ২৪ পরগণার কৃষ্ণচন্দ্রপুর হাইস্কুলের পড়ুয়ারা।

এমনিতেই সারা বছর ধরে বিভিন্ন ধরনের সমাজসেবামূলক কাজ করে থাকে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার অন্যতম স্কুল মথুরাপুর ১ ব্লকের অন্তর্গত কৃষ্ণচন্দ্রপুর হাইস্কুল। ইতিমধ্যেই জাতীয় সেবা প্রকল্পে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে একাধিক পুরষ্কার জিতেছে এই স্কুল। এবার এই স্কুলের পড়ুয়ারা পাশে দাঁড়াল সুন্দরবনের বাঘ-কুমিরে আক্রান্ত মৎস্যজীবী পরিবারগুলোর পাশে।

সারা বছরের টিফিনের পয়সা জমিয়ে তা দিয়ে স্কুলের পড়ুয়ারা সুন্দরবনের প্রত্যন্ত গ্রামে ঘুরে ঘুরে আক্রান্ত পরিবারগুলির হাতে জামা কাপড় ও মশারি তুলে দিল। ছাত্র ছাত্রীদের এই উদ্যোগে সাহায্য করেছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের একাধিক অধ্যাপক অধ্যাপিকারাও। ইতিমধ্যেই জাতীয় সেবা প্রকল্পে রাজ্যের মধ্যে সেরা স্কুলের পুরষ্কার জিতেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার সুন্দরবন এলাকার এই কৃষ্ণচন্দ্রপুর হাইস্কুল। গত বছরই স্কুলে বিনামুল্যে ন্যাপকিন ভেন্ডিং মেশিন বসিয়ে শুধু দক্ষিণ ২৪ পরগনা কেন, রাজ্যের মধ্যেই নজির গরেছিল এই স্কুল। এছাড়া সারা বছর ধরে বিভিন্ন সমাজসেবামূলক কাজে নিজেদের নিয়োজিত রাখে এই স্কুলের পড়ুয়ারা।

আর্সেনিক অধ্যুষিত এলাকায় ক্যালিফোর্নিয়া ইউনিভার্সিটির বিশেষজ্ঞ দলের সঙ্গে ঘুরে এলাকার জল পরীক্ষা করা, আয়লা অধ্যুষিত এলাকার দিনের পর দিন এলাকায় পরে থেকে সাধারন মানুষকে সাহায্য করার পাশাপাশি বিভিন্ন প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে বিপর্যস্ত মানুষের পাশে পাওয়া যায় এই স্কুলের পড়ুয়াদের। এবার সেই স্কুলের পড়ুয়ারাই নিজেদের সারাবছরের টিফিনের পয়সা বাঁচিয়ে সুন্দরবনের বাঘ ও কুমিরের হাতে আক্রান্ত প্রায় দেড়শোটি পরিবারের হাতে তুলে দিল মশারি, জামাকাপড়-সহ দৈনন্দিন জীবনের প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র। শুক্রবার বিকেলে স্কুলের প্রধান শিক্ষক চন্দন মাইতির উদ্যোগে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন অধ্যাপকের সাহায্যে এই স্কুলের পড়ুয়ারা সুন্দরবনের কুলতলি ব্লকের দেবীপুর, পূর্ব গুড়গুড়িয়া এলাকায় গিয়ে আক্রান্ত পরিবারের হাতে তুলে দেয় এই সাহায্য। স্কুলের পড়ুয়াদের এই উদ্যোগে খুশি এই এলাকার মানুষজন।

First published: 08:26:13 PM Feb 20, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर