Home /News /south-bengal /
Siliguri Elephant: পাহাড়ে পৌঁছনর আগেই রোহিণীর পাকদণ্ডিতে গজরাজের সাক্ষাতে খুশি পর্যটকরা

Siliguri Elephant: পাহাড়ে পৌঁছনর আগেই রোহিণীর পাকদণ্ডিতে গজরাজের সাক্ষাতে খুশি পর্যটকরা

Siliguri Elephant

Siliguri Elephant

Siliguri Elephant: আর নিরাশ হয়ে ফিরতে হয়নি পর্যটকদের। এ দিন রোহিণীর রাস্তাতেই দাপিয়ে বেড়াল এক মস্ত দাঁতাল।

  • Share this:

    #শিলিগুড়ি: পাহাড়ে আসা যেন সার্থক! পাহাড়ি পথে বিভিন্ন জন্তুর দেখা মেলা এমন বড় কোনও বিষয় নয়। প্রায় রোজই বিভিন্ন বন্যপ্রাণীর দেখা মেলে পাহাড় থেকে শুরু করে ডুয়ার্স এলাকায়। তবে দিনদুপুরে হাতির হানা! অনন্য অভিজ্ঞতা এনে দেয়। আর এ যেন পর্যটকদের কাছে বিশাল এক পাওনা। অনেকেই বলেন, 'পাহাড় বা জঙ্গলের এত সামনে গেলাম, কিন্তু কিছুই দেখলাম না।' এই আফসোস নিয়েই অনেকে ফিরে যান নিজের গন্তব্যে।

    তবে মঙ্গলবার আর নিরাশ হয়ে ফিরতে হয়নি পর্যটকদের। এ দিন রোহিণীর রাস্তাতেই দাপিয়ে বেড়াল এক মস্ত দাঁতাল। দার্জিলিং যাওয়ার পথে রোহিণীর পাহাড়ি রাস্তায় আচমকা হাতির আগমনে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। রাস্তায় দাঁড়িয়ে যায় সারি সারি পর্যটকদের গাড়ি। রাস্তায় অনেকেই নেমে ভিডিও এবং ছবি তুলতে থাকেন। আতঙ্ক ছড়ালেও, পর্যটকদের উৎসাহের সামনে তা ফিকে হয়ে যায়।

    আরও পড়ুন : শুঁড় দিয়ে গেট খুলে হোটেলে ঢুকল বুনো হাতি! তার পর কী হল আতঙ্কিত পর্যটকদের?

    জানা গিয়েছে, এ দিন পানিঘাটা জঙ্গল থেকে বেড়িয়ে একটি দাঁতাল হাতি চলে আসে রাস্তার উপর। দীর্ঘ ক্ষণ রাস্তায় পায়চারি করে এই বুনো দাঁতাল। হাতি থাকার কারণে রাস্তার দু'পারে দাঁড়িয়ে পড়ে সারি সারি গাড়ি। বেশ কিছু ক্ষণ রাস্তায় পায়চারি করে ফের ফিরে যায় নিজের আস্তানায়। অনেকেই হাতি দেখে গাড়ি থেকে নেমে নিজেদের মোবাইল ক্যামেরায় ছবি তুলতে শুরু করে। এ দিকে পাহাড়ে যাওয়ার আগেই হাতি দেখতে পেয়ে খুশি পর্যটকেরা।

    আরও পড়ুন : ২ বছরের চেষ্টাতেও পাননি চাকরি, অর্থনীতিতে স্নাতক তরুণী এখন ‘চায়ওয়ালি’

    আরও পড়ুন : নামের পাশে ‘ডক্টর’ পরিচয়! ৩০ বছর ধরে রাস্তার ধারে খাবার বিক্রি করছেন এই মহিলা

    এদিন এক পর্যটক বলেন, ‘‘গরমের দাবদাহ থেকে বাঁচতে কিছুদিনের ছুটি কাটাতে এসেছি। এখানে হাতির দেখা যে এ ভাবে পেয়ে যাব, তা জানতাম না। হাতির ছবিও তুলেছি। অনেকেই হাতি দেখে আমাদের মতোই খুশি। যেন এখানে আসা সার্থক হল। প্রথমে ভয় পেলেও পরে আর ভয় লাগেনি তেমন। কারও কোনও ক্ষতিও করেনি।’’ ( প্রতিবেদন : ভাস্কর চক্রবর্তী)

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published:

    Tags: Elephant, Siliguri

    পরবর্তী খবর