corona virus btn
corona virus btn
Loading

রাস্তা বেহাল, পাড়ায় পৌঁছাল না অ্যাম্বুলেন্স! মৃত্যু হল সাপে কাটা রোগীর

রাস্তা বেহাল, পাড়ায় পৌঁছাল না অ্যাম্বুলেন্স! মৃত্যু হল সাপে কাটা রোগীর

রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে যেতে দেরি হওয়াতেই এই মৃত্যু৷ এই দাবি তুলে সরব এলাকার বাসিন্দারা।

  • Share this:

#বাঁকুড়া: রাস্তার অবস্থা বেহাল। তাই অ্যাম্বুলেন্স ডাকলেও অ্যাম্বুলেন্স ঢোকেনি পাড়ায়। দড়ির খাটের ডুলি বানিয়ে রোগীকে নিয়ে যাওয়া হয় গ্রামের বাইরে বড় রাস্তা পর্যন্ত। তাতেও শেষ রক্ষা হয়নি। গতকাল মৃত্যু হয় রোগীর। রাস্তা খারাপের জন্য রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে যেতে দেরি হওয়াতেই এই মৃত্যু৷ এই দাবি তুলে সরব এলাকার বাসিন্দারা।

বাঁকুড়ার পাত্রসায়ের ব্লকের হদলনারায়ণপুর গ্রামের হাইস্কুল মোড় থেকে রুইদাস পাড়া পর্যন্ত প্রায় পাঁচ মিটার রাস্তার অবস্থা দীর্ঘদিন ধরেই বেহাল।  একে কাঁচা রাস্তা তার উপর লাগাতার ভারী বৃষ্টিতে সেই রাস্তাই হয়ে উঠেছে গাড়ি চলাচলের অযোগ্য। এই হদলনারায়ণপুর গ্রামের রুইদাস পাড়ার বাসিন্দা বছর কুড়ির বাপন রুইদাসকে শুক্রবার রাতে বিষধর সাপে কামড় দেয়। বাপনকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য অ্যাম্বুলেন্স ডাকে গ্রামবাসীরা। কিন্তু বেহাল রাস্তার কারণে রুইদাস পাড়া পর্যন্ত পৌঁছাতে পারেনি অ্যাম্বুলেন্স। এরপর গ্রামবাসীরা খাটের ডুলি বানিয়ে বাপন রুইদাসকে নিয়ে যায় বাড়ি থেকে পাঁচশ মিটার দূরে বড় রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা অ্যাম্বুলেন্স পর্যন্ত। এরপর অ্যাম্বুলেন্স করে বাপনকে নিয়ে যাওয়া হয় সোনামুখী ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে।  সেখান থেকে শনিবার বাপনকে রেফার করা হয় বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজে।

গতকাল, শনিবার, সেখানেই মারা যায় বাপন। মৃত্যুর পর মৃতদেহ বাড়িতে আনতেও সেই একই পদ্ধতি নিতে হয় গ্রামবাসীদের। মৃতের আত্মীয় ও গ্রামবাসীদের দাবি রাস্তা খারাপের জন্য বাপনকে হাসপাতালে নিয়ে যেতে অনেকটা সময় চলে যায়।  সঠিক সময়ে হাসপাতালে নিয়ে যেতে পারলে বাপনের মৃত্যু হত না। শুধু বাপনের ক্ষেত্রেই নয় রাস্তার বেহাল দশার জন্য রুইদাস পাড়ার প্রসুতি থেকে শুরু করে সাধারণ রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে যেতে হলে গ্রামবাসীদের বারবার একই সমস্যায় পড়তে হচ্ছে বলে দাবি। এই ঘটনার জন্য স্থানীয় পঞ্চায়েত থেকে শুরু করে প্রশাসনকে দুষেছেন বিজেপি নেতৃত্ব। রাস্তার বেহাল দশার কথা মেনে নিয়েছে স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েত। দ্রুত ওই রাস্তা পাকা করা হবে বলেও আস্বাস দিয়েছে পঞ্চায়েত।

Mritunjoy Das
Published by: Pooja Basu
First published: August 30, 2020, 10:33 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर