corona virus btn
corona virus btn
Loading

হাজার জনকে খাবার, মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ৬ লক্ষ টাকা দিলেন রাইস মিল মালিকরা

হাজার জনকে খাবার, মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ৬ লক্ষ টাকা দিলেন রাইস মিল মালিকরা

জেলা শাসক বিজয় ভারতী ও জেলা পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে রাইস মিল মালিকরা মন্ত্রী স্বপন দেবনাথের হাতে চেক তুলে দেন।

  • Share this:

# বর্ধমান: সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিলেন বর্ধমানের রাইস মিল মালিকরা। এদিন বর্ধমান ডিস্ট্রিক্ট রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে মুখ্যমন্ত্রীর ত্রান তহবিলে ছ লক্ষ টাকা দান করা হয়। জেলা শাসক বিজয় ভারতী ও জেলা পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে রাইস মিল মালিকরা মন্ত্রী স্বপন দেবনাথের হাতে চেক তুলে দেন। এছাড়াও এদিন এলাকার এক হাজার পুরুষ মহিলার হাতে রান্না করা খাবার তুলে দেন রাইস মিল মালিকরা। তাদের এই উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করেন প্রাণী সম্পদ বিকাশ মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ। খাদ্য মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকও রাইস মিল মালিকদের এই কাজের জন্য শুভেচ্ছা জানান।

বর্ধমান ডিস্ট্রিক্ট রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষে আব্দুল মালেক বলেন, সব সময়ই আমরা জেলা প্রশাসন তথা রাজ্য সরকারের পাশে রয়েছি। রাজ্য জুড়ে  চালের যোগান ঠিক রাখতে এই লক ডাউনের পরিস্থিতিতেও জেলা প্রশাসনের পরামর্শে আমরা রাইস মিলগুলি চালু রেখেছি। সেখানে নিয়মিত চাল উৎপাদন হচ্ছে। শ্রমিকরা এই পরিস্থিতিতেও উপার্জন করে খাদ্য সামগ্রী কিনতে পারছেন। আমরাও তাদের পাশে দাঁড়িয়েছি। তারা যাতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কাজ করেন সে ব্যাপারে তাদের সচেতন করা হয়েছে। তাদের জন্য  স্যানিটাইজার মাস্কের ব্যবস্থা হয়েছে। আজ বর্ধমানের রাইস মিল মালিকদের পক্ষ থেকে মুখ্যমন্ত্রীর ত্রান তহবিলে  ছ লক্ষ টাকার চেক দিতে পেরে ও এক হাজার মানুষের মুখে রান্না করা খাবার তুলে দিতে পেরে ভালো লাগছে।

মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ বলেন, পূর্ব বর্ধমান জেলার রাইস মিল মালিকরা সব সময়ই সমাজের বিপদে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়। আমরা অন্যান্য ক্লাব সংগঠনকেও এ কাজে এগিয়ে আসতে বলছি। অনেক স্কুলও মুখ্যমন্ত্রীর ত্রান তহবিলে অর্থ সাহায্য করছে। অনেকে ব্যক্তিগত উদ্যোগেও চাল আলু সহ খাদ্য সামগ্রী বিলি করছেন। পূর্বস্থলী এলাকার দুটি স্কুলের শিক্ষকরা মুখ্যমন্ত্রীর ত্রান তহবিলে আশি হাজার টাকা জমা দিয়েছেন। সে সংক্রান্ত দুটি চেক জেলা শাসকের হাতে তুলে দেন মন্ত্রী।

First published: April 6, 2020, 4:11 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर