বাড়ি বাড়ি থেকে নেওয়া এক মুঠো করে চাল ও সবজি দিয়ে কী করবে বিজেপি!খোলসা করলেন রাহুল সিনহা

বাড়ি বাড়ি থেকে নেওয়া এক মুঠো করে চাল ও সবজি দিয়ে কী করবে বিজেপি!খোলসা করলেন রাহুল সিনহা
এদিনের এই কর্মসূচি উপলক্ষে দুই নম্বর জাতীয় সড়ক থেকে রাহুল সিনহার নেতৃত্বে পদযাত্রা শুরু হয়। পদযাত্রা শেষে কয়েকটি কৃষক পরিবারের কাছে যান তিনি।

এদিনের এই কর্মসূচি উপলক্ষে দুই নম্বর জাতীয় সড়ক থেকে রাহুল সিনহার নেতৃত্বে পদযাত্রা শুরু হয়। পদযাত্রা শেষে কয়েকটি কৃষক পরিবারের কাছে যান তিনি।

  • Share this:

#বর্ধমান: কৃষকদের বাড়ি থেকে এক মুঠো করে সংগ্রহ করা চাল সবজি দিয়ে খিচুড়ি রান্না করা হবে। সেই খিচুড়ি প্রসাদ হিসেবে গ্রহণ করবেন বিজেপি নেতা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। চলতি মাসের শেষে ৩০ ও ৩১ জানুয়ারি দুদিনের সফরে এ রাজ্যে আসছেন তিনি। সেই সময় তিনি দলের কেন্দ্রীয় ও রাজ্য নেতাদের সঙ্গে সেই খিচুড়ি প্রসাদ হিসেবে গ্রহণ করবেন। এমনটিই জানিয়েছেন বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা।

পূর্ব বর্ধমান জেলা সফরে এসে কাটোয়ায় পাঁচ কৃষক পরিবারের কাছ থেকে এক মুঠো করে চাল সবজি সংগ্রহ করে শোনো চাষিভাই কর্মসূচির সূচনা করেছিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। সেদিন থেকেই রাজ্যজুড়ে কৃষকদের পরিবার থেকে এক মুঠো করে চাল ও সবজি সংগ্রহ অভিযান শুরু হয়। মোট চল্লিশ হাজার পরিবার থেকে চাল ও সবজি সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে বিজেপি।


এই চাল ও সবজি কোন কাজে ব্যবহার করা হবে তা নিয়ে কৌতূহল ছিল সকলের মনে। সেই চাল ও সবজি দিয়ে খিচুড়ি রান্না করে তা স্বয়ং অমিত শাহ প্রসাদ হিসেবে গ্রহণ করবেন বলে জানিয়েছে বিজেপি নেতৃত্ব। একথা জানিয়ে রাহুল সিনহা বলেন,মর্তের ভগবান হল কৃষকরা। তাই তাদের উৎপাদিত ফসল প্রসাদ হিসেবে গ্রহণ করবেন অমিত শাহ। এ রাজ্যের কৃষকদের মন পেতেই বিজেপির এই কর্মসূচি বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

এদিন বর্ধমানে কৃষকদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে এক মুঠো করে চাল ও সবজি সংগ্রহ করেন বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা। বৃহস্পতিবার বর্ধমানের আমরা গ্রামে শোনো চাষিভাই কর্মসূচি পালন করেন তিনি। এরপর কৃষক পরিবারে মধ্যাহ্নভোজ সারেন। মূলত নয়া কেন্দ্রীয় কৃষি আইন দেশের কৃষকদের কতটা উপকারে আসবে সে ব্যাপারে প্রচার চালাতে এ দিনের কর্মসূচি ছিল এই বিজেপি নেতার।

এদিনের এই কর্মসূচি উপলক্ষে দুই নম্বর জাতীয় সড়ক থেকে রাহুল সিনহার নেতৃত্বে পদযাত্রা শুরু হয়। পদযাত্রা শেষে কয়েকটি কৃষক পরিবারের কাছে যান তিনি। তাদের কাছ থেকে চাল আলু সবজি সংগ্রহ করে ঝোলায় পোরেন তিনি। কথা বলেন, স্থানীয় কৃষক পরিবারের সদস্য শিবপ্রসাদ মাঝি,শ্যামলী মাঝি,কৃষ্ণা পাড়ে, পদ্মা বাগ,শ্যামলী দাস ও প্রিয়াংকা নায়কের সঙ্গে। রাহুল সিনহা তাদের সঙ্গে কৃষিকাজে সুবিধা অসুবিধার ব্যাপারে কথা বলে। কেন্দ্রের নয়া কৃষি আইনে সারা দেশের পাশাপাশি এ রাজ্যের কৃষকরাও লাভবান হবেন বলে রাহুল সিনহা গ্রামবাসীদের জানান। পরে আমরা গ্রামের কৃষক পরেশ চন্দ্র দাসের বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজ সাড়েন তিনি। কলা পাতায় পঞ্চ ব্যঞ্জন সাজিয়ে রাহুল সিনহা সহ জেলা নেতাদের মধ্যাহ্ন আহার দেওয়া হয়।

Published by:Pooja Basu
First published:

লেটেস্ট খবর