ঘনিষ্ঠ অবস্থায় দেখে ফেলায় মেয়ের সামনেই খুন অবসরপ্রাপ্ত স্কুলশিক্ষক

ঘনিষ্ঠ অবস্থায় দেখে ফেলায় মেয়ের সামনেই খুন অবসরপ্রাপ্ত স্কুলশিক্ষক
Representational Image

ঘটনাস্থল থেকে ধৃত অভিযুক্ত প্রদীপ চৌহান।

  • Share this:

 #দুর্গাপুর: মেয়ের সামনে খুন অবসরপ্রাপ্ত স্কুলশিক্ষক। গতরাতে বাড়িতে ধারাল অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করা হয় দুর্গাপুর ভিরিঙ্গি টি এন ইনস্টিটিউশনের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক তপন মুখোপাধ্যায়কে । ঘটনাস্থল থেকে ধৃত অভিযুক্ত প্রদীপ চৌহান। প্রদীপের সঙ্গে মেয়েকে ঘনিষ্ঠ অবস্থায় দেখে ফেলায় খুন শিক্ষক, দাবি পুলিশের।

রবিবার রাত নটা। নাইট ডিউটিতে বেরিয়ে গিয়েছিলেন পেশায় নার্স স্ত্রী সুনন্দা মুখোপাধ্যায়। দুর্গাপুরের ফরিদপুরের দোতলা বাড়িতে ছিলেন মেয়ে শিবানী ও অসুস্থ শাশুড়ি। পুলিশের দাবি, ফাঁকা বাড়ির সুযোগে বাড়িতে আসে উত্তরপ্রদেশের বাসিন্দা প্রদীপ চৌহান। বাড়ি ফিরে মেয়েকে প্রদীপের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ অবস্থায় দেখে ফেলেন তপন মুখোপাধ্যায়। তিনি চিৎকার করলে,মেয়ের সামনেই ধারালো অস্ত্র দিয়ে শিক্ষককে খুন করে প্রদীপ। শিবানীর চিৎকারে প্রতিবেশীরা চলে এলে, ছাদে চলে যায় প্রদীপ। প্রাণে বাঁচতে এক ছাদ থেকে লাফিয়ে পাশের ছাদে গিয়েও শেষরক্ষা হয়নি। এলাকার লোকজনই তাকে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

আরও পড়ুন 

এক বছরের মধ্যে দ্বিগুণ লাভবান হতে চাইলে বিনিয়োগ করুন এই স্কিমগুলিতে

পুলিশের দাবি, জেরায় খুনের কথা স্বীকার করেছে ধৃত প্রদীপ। তার দাবি, শিবানীর সঙ্গে তার প্রায় দেড় বছরের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক। যদিও নিহত শিক্ষকের স্ত্রীর দাবি, শিবানীকে দীর্ঘদিন বিরক্ত করত প্রদীপ। থানায় অভিযোগ জানিয়েও লাভ হয়নি। একই দাবি মেয়েরও। তিনি বলছেন, প্রদীপের হুমকিতে বাড়ি ছাড়তে চেয়েছিলেন তিনি।

আরও পড়ুন 

মোবাইলে দ্রুত টাইপ করতে পারেন? তবে রাজ্য সরকারের এই চাকরিতে আজই করুন আবেদন

প্রেম ? না সম্পত্তির লোভ? শিবানীকে কেন আড়াল করছে পরিবার? উঠে আসছে বেশ কিছু প্রশ্ন। সমস্ত সম্ভাবনা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। কথা বলা হচ্ছে নিহত শিক্ষকের স্ত্রী ও মেয়ের সঙ্গে।

First published: 12:17:10 PM Aug 27, 2018
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर