West Bengal Election: প্রথম দফার ৩০ আসনে কে এগিয়ে, কে পিছিয়ে? কী বলছে লোকসভা নির্বাচনের ফল?

West Bengal Election: প্রথম দফার ৩০ আসনে কে এগিয়ে, কে পিছিয়ে? কী বলছে লোকসভা নির্বাচনের ফল?

TMC BJP

প্রথম দফায় পাঁচ জেলার তিরিশটি আসনে নির্বাচন৷ লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল নিরিখে এর মধ্যে ১০টি আসনে এগিয়ে ছিল তৃণমূল কংগ্রেস৷ সেখানে বিজেপি এগিয়ে ছিল বাকি ২০টি আসনে৷

  • Share this:

    #কলকাতা: ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচন এ রাজ্যে বিজেপি-র উত্থান দেখেছিল৷ ১৮টি লোকসভা আসন জিতে নিয়েছিল বিজেপি৷ জঙ্গলমহলের পাশাপাশি দুর্দান্ত ফল হয়েছিল উত্তরবঙ্গে৷ সেই জঙ্গলমহল থেকেই শনিবার বিধানসভা নির্বাচনের প্রথম দফার ভোট গ্রহণ শুরু হচ্ছে৷ ফলে একদিকে যেমন লোকসভা নির্বাচনে পাওয়া জনসমর্থন ধরে রাখার চ্যালেঞ্জ বিজেপি-র সামনে, সেরকমই তৃণমূলের লক্ষ্য হারানো জমি পুনরুদ্ধার করা৷ ফলে লড়াই হবে হাড্ডাহাড্ডি৷ তার উপর তৃণমূল কংগ্রেসের সামনে রয়েছে শুভেন্দু অধিকারী সহ অধিকারী পরিবারকে ছাড়াই পূর্ব মেদিনীপুরের আসনগুলিতে ভাল ফল করার চ্যালেঞ্জ৷

    প্রথম দফায় পাঁচ জেলার তিরিশটি আসনে নির্বাচন৷ লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল নিরিখে এর মধ্যে ১০টি আসনে এগিয়ে ছিল তৃণমূল কংগ্রেস৷ সেখানে বিজেপি এগিয়ে ছিল বাকি ২০টি আসনে৷ সেভাবে কোনও ছাপই ফেলতে পারেনি বাম- কংগ্রেস৷ তবে লোকসভা নির্বাচনের সঙ্গে বিধানসভা নির্বাচনের অনেক ফারাক থাকে, ইস্যুও থাকে আলাদা৷ তবে শনিবার যে কেন্দ্রগুলিতে ভোট হবে, দু' বছর আগে লোকসভা নির্বাচনের নিরিখে কোথায় কে এগিয়ে রয়েছে, ব্যবধানই বা কত, তা একনজরে দেখে নেওয়া যাক৷

    পূর্ব মেদিনীপুর ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের সময় শুভেন্দু অধিকারী ছিলেন তৃণমূলে৷ পূর্ব মেদিনীপুর তৃণমূলের ফলও হয়েছিল যথেষ্ট ভাল৷ লোকসভা ভোটের নিরিখে ১৬টি বিধানসভার মধ্যে ১৪টিতে এগিয়ে ছিল তৃণমূল কংগ্রেস৷ শনিবার এই জেলার যে সাতটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ হবে, তার মধ্যে ৬টিতেই এগিয়ে ছিল তৃণমূল৷ একটিতে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷ একনজরে দেখে নেওয়া যাক, প্রথম দফায় পূর্ব মেদিনীপুরের যে ৭টি কেন্দ্রে ভোট রয়েছে, তার মধ্যে কোনটিতে কী ফলাফল হয়েছিল-

    কাঁথি উত্তর- অধিকারী পরিবারের গড় কাঁথির এই কেন্দ্রে লোকসভা নির্বাচনের ফল অনুযায়ী ১৩,০৭৪ ভোটে এগিয়ে ছিল তৃণমূল কংগ্রেস৷

    কাঁথি দক্ষিণ- এই কেন্দ্র থেকেও তৃণমূল এগিয়ে ছিল ১৯,০১৫ ভোটে৷ যদিও লোকসভা নির্বাচনের সময় শুভেন্দু অধিকারী, শিশির অধিকারীরা ছিলেন তৃণমূলে৷ এখন তাঁরা শিবির বদলে বিজেপি-তে৷ এর ফলে দুই কেন্দ্রের ফলও বদলাবে কি না, সেটাই এখন দেখার৷

    পটাশপুর- এই কেন্দ্র থেকে ১৪,৩৫৫ ভোটে এগিয়ে ছিল তৃণমূল৷

    ভগবানপুর- এই কেন্দ্র থেকেও ৩৭,৩৯১ ভোটে এগিয়ে ছিল শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস৷

    খেজুরি- নন্দীগ্রাম লাগোয়া এই কেন্দ্রে লোকসভা নির্বাচনের ফল অনুযায়ী ৫,৫৫৩ ভোটে এগিয়ে ছিল তৃণমূল৷

    এগরা- এই কেন্দ্র থেকে অবশ্য লোকসভার ফল অনুযায়ী ৮,৬৯৪ ভোটে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷

    রামনগর- এই কেন্দ্রে এবারও তৃণমূল প্রার্থী অখিল গিরি৷ যিনি বরাবর অধিকারী পরিবারের বিরোধী গোষ্ঠীর বলে পরিচিত৷ লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল অনুযায়ী এই কেন্দ্রে এগিয়ে ছিল তৃণমূলই৷ ব্যবধান ছিল ৭,৭৬৬৷

    পশ্চিম মেদিনীপুর পশ্চিম মেদিনীপুরে মোট বিধানসভা রয়েছে ১৫টি৷ তার মধ্যে ৬টি আসনে শনিবার ভোট৷ লোকসভা ভোটের নিরিখে এই জেলাতেও হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছিল৷ ১৫টি আসনের মধ্যে ৮টিতে এগিয়ে ছিল তৃণমূল, ৭টিতে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷ শনিবার যে ৬টি কেন্দ্রে ভোট হবে, লোকসভা নির্বাচনের নিরিখে তার ফলাফল দেখে নেওয়া যাক-

    দাঁতন- বিজেপি এগিয়ে ছিল ৬,৬৮৯ ভোটে৷

    কেশিয়াড়ি- এই বিধানসভা কেন্দ্রে বিজেপি এগিয়ে ছিল ১০,৮৭৪ ভোটে৷

    গড়বেতা- লোকসভা ভোটের ফলের নিরিখে গড়বেতাতেও বিজেপি এগিয়ে ছিল ৬,৮১১ ভোটে৷

    শালবনী- এই কেন্দ্রে এবার বামেদের প্রার্থী সুশান্ত ঘোষ৷ লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল অনুযায়ী অবশ্য এই কেন্দ্র থেকে এগিয়ে ছিল তৃণমূল৷ দু' নম্বরে ছিল বিজেপি৷ ব্যবধান ছিল ৮,৭২৫৷ বামেরা পেয়েছিল মাত্র ১১,০২৪টি ভোট৷

    মেদিনীপুর- এই কেন্দ্রে এবার তৃণমূলের প্রার্থী জুন মালিয়া৷ তবে লোকসভা নির্বাচনের ফলের নিরিখে এই কেন্দ্রে ১৬,৬৪১ ভোটে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷

    খড়্গপুর- লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল অনুযায়ী এই কেন্দ্রে তৃণমূল এগিয়ে ছিল ৯,৪৬৭ ভোটে৷

    ঝাড়গ্রাম ঝাড়গ্রামের চারটি বিধানসভা কেন্দ্রেই ভোটগ্রহণ শনিবার৷ লোকসভা নির্বাচনের ফল অনুযায়ী তার মধ্যে তিনটিতে এগিয়ে ছিল বিজেপি, একটিতে এগিয়ে ছিল তৃণমূল কংগ্রেস৷

    বিনপুর- লোকসভা নির্বাচনের ফলের নিরিখে ৩,০৫৯ ভোটে বিজেপি-র তুলনায় এগিয়ে ছিল তৃণমূল কংগ্রেস৷

    নয়াগ্রাম- এই কেন্দ্রটিতে আবার ৩,৩৩৮ ভোটে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷

    গোপীবল্লভপুর- এই কেন্দ্রে ৬,৮২৯ ভোটে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷

    ঝাড়গ্রাম- এই বিধানসভা কেন্দ্রেও লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল এবং বিজেপি-র মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়৷ ফলাফল বলছে, ১৬৪৩ ভোটে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷

    পুরুলিয়া পুরুলিয়া জেলার ৯টি বিধানসভাতেই প্রথম দফায় শনিবারই ভোট গ্রহণ হবে৷ লোকসভা নির্বাচনের ফল বলছে তার মধ্যে ৮টি বিধানসভায় এগিয়ে ছিল বিজেপি, মাত্র একটি বিধানসভায় এগিয়ে ছিল শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস৷ একনজরে দেখে নেওয়া যাক, পুরুলিয়ার ৯টি বিধানসভায় লোকসভা নির্বাচনের নিরিখে কী ফলাফল হয়েছিল-

    বাঘমুন্ডি- লোকসভা নির্বাচনের নিরিখে এই কেন্দ্র থেকে ৫২,৭০৮ ভোটে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷

    বলরামপুর- এই কেন্দ্র থেকে ৩৫,৪৬৯ ভোটে তৃণমূলকে পিছনে ফেলে বিজেপি৷

    বান্দোয়ান- বিজেপি এগিয়ে ছিল ২৯৭০ ভোটে৷

    জয়পুর- এই কেন্দ্র থেকেও ৩১,৭৪৪ ভোটে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷

    পুরুলিয়া- এই বিধানসভা কেন্দ্রেও বিজেপি এগিয়ে ছিল ৩৬,৪৯৭ ভোটে৷

    মানবাজার- পুরুলিয়া জেলার এই কেন্দ্রটিতে লোকসভা নির্বাচনের নিরিখে ১০,৫৮৩ ভোটে এগিয়ে ছিল তৃণমূল কংগ্রেস৷

    কাশীপুর- এই কেন্দ্র থেকেও বিজেপি তৃণমূলের থেকে এগিয়ে ছিল ১৬,১৫৪ ভোটে৷

    পারা- তৃণমূলের তুলনায় ৪১,২৪২ ভোটে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷

    রঘুনাথপুর- লোকসভা নির্বাচনে এই কেন্দ্রেও যথেষ্ট বড় ব্যবধানে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷ তৃণমূলের তুলনায় ৪২,৬৩৩ ভোটে এগিয়ে ছিল তারা৷

    বাঁকুড়া লোকসভা নির্বাচনের নিরিখে বাঁকুড়ার ১২টি আসনেই এগিয়ে ছিল বিজেপি৷ শনিবার এই জেলার চারটি আসনে ভোটগ্রহণ৷ একনজরে দেখে নিন, সেই কেন্দ্রগুলিতে লোকসভা নির্বাচনের নিরিখে কতটা পিছিয়ে ছিল শাসক দল৷

    রায়পুর- এই কেন্দ্রে লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি এগিয়ে ছিল ৩৩৫১ ভোটে৷

    রানিবাঁধ- বাঁকুড়ার এই কেন্দ্রেও ১৫,৮১৪ ভোটে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷

    ছাতনা- লোকসভা নির্বাচনের নিরিখে এই কেন্দ্রেও বিজেপি এগিয়ে ছিল ৩১.১৮২ ভোটে৷

    শালতোড়া- এই বিধানসভায় লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের থেকে ১৫০৫৬ ভোটে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷

    (তথ্য়সূত্র- জনাদেশ, লেখক- বিশ্বনাথ চক্রবর্তী)

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: