বাংলার জনতা বিজেপিকে বিশ্বাস করছে, কাঁথি উপনির্বাচনের ফল তার প্রমাণ: কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশঙ্কর

কাঁথি দক্ষিণে বড় ব্যবধানে জয় পেলেও, তৃণমূল কংগ্রেসকে ভাবাচ্ছে পদ্মফুলের কাঁটা।

Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Apr 13, 2017 09:05 PM IST
বাংলার জনতা বিজেপিকে বিশ্বাস করছে, কাঁথি উপনির্বাচনের ফল তার প্রমাণ: কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশঙ্কর
Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Apr 13, 2017 09:05 PM IST

#কলকাতা: কাঁথি দক্ষিণে বড় ব্যবধানে জয় পেলেও, তৃণমূল কংগ্রেসকে ভাবাচ্ছে পদ্মফুলের কাঁটা। উপনির্বাচনে বাম-কংগ্রেসকে পিছনে ফেলে ভোট ভাগাভাগিতে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে বিজেপি। কোন রাজনৈতিক অঙ্কে এই ম্যাজিক?  বামনেতারাই মেনে নিচ্ছেন, তাঁদের ভোটব্যাঙ্কেও ধস নামিয়েছে গেরুয়াশিবির।

পূর্ব মেদিনীপুর তৃণমূল কংগ্রেসের গড়। গতবছরেই কাঁথি দক্ষিণ কেন্দ্র থেকে বিপুল ভোটে জেতেন দিব্যেন্দু অধিকারী। সেই বিধানসভা কেন্দ্রে তৃণমূল কংগ্রেসের জয় নিয়ে কোনও আশঙ্কাই করেনি ঘাসফুল শিবির। কিন্তু, সেখানেই মোট প্রাপ্ত ভোটের নিরিখে শাসকদলের পরেই বিজেপি। গতবারের চেয়ে সাড়ে তিন গুন ভোট বাড়িয়ে দক্ষিণ কাঁথি বিধানসভায় উপনির্বাচনে দ্বিতীয় স্থানে গেরুয়াশিবির।

বুথ স্তরে যাচ্ছেন বিজেপি নেতারা ৷ অমিত শাহ আসার আগেই শুরু নিচুতলায় যোগাযোগ স্থাপন করা শুরু হয়ে গিয়েছে ৷ চুঁচুড়ায় বিজেপির বুথ স্তরের সভাপতির বাড়িতে যান কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী ৷ বৃহস্পতিবার হুগলি জেলা সফরে যান কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী রবিশংকর প্রসাদ ৷ বিজেপির বিভিন্ন স্তরের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি ৷

কাঁথি উপনির্বাচন নিয়ে রবিশঙ্কর বলেন, ‘ কাঁথি উপ নির্বাচনের ফল আগামী ভবিষ্যতের সংকেত। বাংলার জনতা বিজেপিকে বিশ্বাস করতে শুরু করেছে। লেফ্টকে লেফ্ট আউট করে জনগন বিজেপিকে ভোট দিয়েছে। এর জন্য বাংলার জনগনকে প্রনাম জানাই।’

এছাড়াও রামনবমির মিছিলে হওয়া অশান্তি নিয়ে তিনি বলেন, ‘যদি শুনি রামনবমির মিছিল বের করা যাবে না,হনুমান জয়ন্তির মিছিলে পুলিশ ব্যাবস্থা নেবে, এটা ঠিক নয়। যদি আইন শৃঙ্খলার মত গম্ভীর বিষয় হয় তাহলে রাজ্য ব্যাবস্থা নিতে পারে। সংবিধান মেনে যে কেউ মিছিল করতে পারে।অন্য রাজ্যে মিছিল নিয়ে কোনো সমস্যা নেই।বাংলায় কেন হচ্ছে?’

Loading...

এদিন সাংবাদিক বৈঠকে সারদা নারদা ইস্যু নিয়েও সরব হন কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী ৷ প্রশ্ন তোলেন, ‘সারদা নারদা রোজভ্যালীতে সিবিআই চলছে।আর কতদিন মমতার সরকারে এই দূর্নীতি চলবে ?’ পাশাপাশি সততার সঙ্গে তদন্তেরও দাবি জানান তিনি ৷

পাশাপাশি তিন তালাক নিয়ে মমতার অবস্থান নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি ৷ এদিন রবিশঙ্কর প্রশ্ন করেন, ‘মমতাজি তিন তালাক নিয়ে আপনার স্ট্যান্ড কি? আজ এটা দেশের একটা বড় বিষয় হয়ে রয়েছে। বিজেপির ভাবনা খুব স্বচ্ছ। আইন মন্ত্রী হিসেবে সুপ্রিম কোর্টে এফিডেবিট ফাইল করেছি। এটা নারী ন্যায়,নারীর সমানধিকার,নারীর গর্বের প্রশ্ন। তিন তালাক অসাংবিধানিক। বিশ্বের ২১-২২ টা মুসলিম দেশে তিন তালাক কে রেগুলেট করেছে। ভারত তো ধর্ম নিরপেক্ষ দেশ তাহলে সমস্যা কোথায়?বলা হয় উত্তর প্রদেশের পরে দ্বিতীয় রাজ্য পশ্চিম বঙ্গ যেখানে তালাক পিড়িত বেশি। আপনি তো নারী ন্যায়ের কথা বলেন ৷ তাহলে তালাক পিড়িত মহিলাদের নিয়ে আপনার ভাবনা কি? দেশের আইন মন্ত্রী হিসাবে এটা বলছি তালাক পিড়িতরা যাতে ন্যায় পায় তার জন্য সবরকম চেষ্টা করব। ’

First published: 09:05:23 PM Apr 13, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर