Ration Dealer: ডিলারের কাছে রেশন কার্ড জমা? কী হতে পারে, দেখিয়ে দিল নলহাটি!

নলহাটিতে গণ্ডগোল

Ration Dealer: এলাকাবাসীকে অনিয়মিত রেশন দিয়ে আসছিলেন। এমনকী রেশন কার্ড জমা রেখে পরে রেশন দেওয়া হবে বলা হচ্ছে রেশন গ্রাহকদের।

  • Share this:

    #বীরভূম: রেশন ডিলারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ গ্রামবাসীদের। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের নলহাটিতে। রবিবার সকালে নলহাটি থানার ভেলিয়ান গ্রামে ঘটনাটি ঘটে। গ্রামবাসীদের অভিযোগ লকডাউনের সময় থেকে স্থানীয় রেশন ডিলার নইমাতুন বিবি এলাকাবাসীকে অনিয়মিত রেশন দিয়ে আসছে। এমনকী রেশন কার্ড জমা রেখে পরে রেশন দেওয়া হবে বলা হচ্ছে রেশন গ্রাহকদের।

    পাশাপাশি রেশনের মাথাপিছু সামগ্রীও কম দেওয়ার অভিযোগ তুলে আজ রেশন ডিলারের বাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ দেখালেন এলাকাবাসীরা। স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েত সদশ্য আকতাউর জামান বলেন, দীর্ঘদিন ধরে তার কাছে গ্রামবাসীদের অভিযোগ ছিল যে ভেলিয়ান গ্রামের রেশন ডিলার নইমাতুন বিবির ছেলে রেশনে কম সামগ্রী দিচ্ছেন এলাকাবাসীকে। তার জেরেই আজ সকালে গ্রামবাসীরা বিক্ষোভ দেখায়। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করে বরাদ্দ রেশন যা আসে তা তিনি সকলে যথাযথ দেন বলে জানান রেশন ডিলার নইমাতুন বিবির ছেলে।

    এদিকে, এই বীরভূমেই দিন দুই আগে রেশন নিতে গিয়ে চাঞ্চল্যকর এক তথ্য সামনে আনেন এক ব্যক্তি। প্রায় সাড়ে তিন বছর আগে মৃত তার মায়ের নামে হঠাৎ রেশন দিচ্ছেন রেশন ডিলার। হঠাৎ এই রেশন দেওয়াকে কেন্দ্র করে নানান প্রশ্ন উঠছে। মৃত মহিলা সম্পর্কে রেশন ডিলারকে জানানো সত্ত্বেও কীভাবে মৃত মহিলার নামে রেশন সামগ্রী বরাদ্দ হল? এতদিনের রেশন সামগ্রীই বা গেল কোথায়? আর এই সকল প্রশ্নের পরিপ্রেক্ষিতেই রেশন ডিলারের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছেন ওই উপভোক্তা।

    এমন ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের মুরারই ব্লকের অন্তর্গত মুরারই গ্রামে। ওই গ্রামের বাসিন্দা বিজয় কেশরী অভিযোগ করেন, তাঁর মা পার্বতী কেশরী ২০১৮ সালে মারা যান। তারপর নিয়ম মেনে তিনি রেশন ডিলারকে মায়ের মৃত্যু সংবাদ জানান। রেশন কার্ডটি বাতিল করার অনুরোধ করেন। কিন্তু বৃহস্পতিবার তিনি রেশন দোকানে গিয়ে দেখেন তার মায়ের নামেও রেশন বরাদ্দ করেছেন অভিযুক্ত রেশন ডিলার সুমন কেশরী। অভিযুক্ত ওই রেশন ডিলার সুমন কেশরী জানিয়েছেন, "মেশিনে শো করছে তাই দিতে হল।" তবে সদুত্তর মেলেনি ওই রেশন ডিলারের থেকে।

    Published by:Suman Biswas
    First published: