নজির! জটিল অস্ত্রোপচার করে সাফল্য ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালের

নজির! জটিল অস্ত্রোপচার করে সাফল্য ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালের

সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসার গাফিলতি নিয়ে প্রায়ই অভিযোগ ওঠে। তবে এক্ষেত্রে চিত্র একেবারে আলাদা৷ ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালের চিকিৎসকরা ভাল কাজের নজির গড়লেন ।

  • Share this:

#ইসলামপুর: জটিল অস্ত্রোপচারে সফল হলেন ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালের চিকিৎসক। পরিকাঠামো ছাড়াই জটিল অস্ত্রোপচারে সাফল্য আসায় খুশী চিকিৎসক থেকে শুরু করে হাসপাতাল প্রশাসন। আর সবচেয়ে বড় খবর, অস্ত্রোপচারের পরেও রোগী অনেকটাই সুস্থ আছেন।

সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসার গাফিলতি নিয়ে প্রায়ই অভিযোগ ওঠে। রোগীর আত্মীয়দের হাতে চিকিৎসক নিগ্রহের ঘটনাও প্রায়ই ঘটে। তবে এক্ষেত্রে চিত্র একেবারে আলাদা৷ ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালের চিকিৎসকরা ভাল কাজের নজির গড়লেন ।

ইসলামপুরের বাসিন্দা ষাটোর্ধ্ব মহিলা সুজাতা প্রধান পড়ে যান৷ তাঁর বাঁ পায়ের ফিমোরাল হেড ভেঙে যায়। গত সাতদিন আগে তাঁকে ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্ত্তি করা হয়। ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালের চিকিৎসক সফি চোধুরী গতকাল রাতে তাঁর অস্ত্রোপচার করেন। অস্ত্রোপচার সফল বলে চিকিৎসকরা দাবি করেছেন। আপাতত সুজাতাদেবী সুস্থ আছেন। মহকুমা হাসপাতালের মতো জায়গায় এধরনের অস্ত্রপ্রচার করে রোগীকে সুস্থ করে তুলেছেন তাতে খুশী রোগীর আত্মীয় গৌরী গাইন।

গৌরী দেবী জানিয়েছেন, ছোট থেকে এখানেই বড় হয়েছেন, তবে এধরণের অস্ত্রোপচারের কথা তিনি কোনওদিনই শোনেননি। ইসলামপুর হাসপাতালের পরিকাঠামো তেমন উন্নত না হলেও শুধুমাত্র চিকিৎসকের সদিচ্ছাতেই এই সাফল্য এসেছে বলে মনে করছেন অনেকেই। চিকিৎসকদের কর্মতৎপরতায় খুশী রোগী সুজাতা দেবী। চিকিৎসক সুফি চৌধুরী জানিয়েছেন, ‘আগে এধরনের রোগীকে শিলিগুড়ি, কলকাতা কিংবা পাটনায় স্থানান্তর করা হত। আর এ ধরণের অস্ত্রোপচার বাইরে করতে হলে রোগীকে লক্ষাধিক টাকা গুনতে হত। ইসলামপুর হাসপাতালে তার বিনামূল্যে অস্ত্রপ্রচার করা হয়েছে।

হাসপাতাল সুপার নারায়ন মিদ্যা জানিয়েছেন, রোগীর একাধিক সমস্যা থাকা সত্ত্বেও এ ধরনের অস্ত্রপ্রচার করে হাসপাতালের চিকিৎসক সফি চোধুরী নজির গড়লেন। মহকুমা হাসপাতালে পরিকাঠামো উন্নতি হলে আগামীতে কোন রোগীকেই স্থানান্তর করা হবে না বলেই মনে করা হচ্ছে৷

First published: February 29, 2020, 9:12 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर