Rakhal Bera: আর্থিক প্রতারণা! গ্রেফতার শুভেন্দু অধিকারী ঘনিষ্ঠ রাখাল বেরা

সেচ দফতরে দুর্নীতির তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। আর সেই তদন্তেরই প্রথম পদক্ষেপ হিসাবে রাখাল বেরাকে গ্রেফতার করা হল বলে মনে করা হচ্ছে।

সেচ দফতরে দুর্নীতির তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। আর সেই তদন্তেরই প্রথম পদক্ষেপ হিসাবে রাখাল বেরাকে গ্রেফতার করা হল বলে মনে করা হচ্ছে।

  • Share this:

    #কলকাতা: শুভেন্দু অধিকারীর ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত রাখাল বেরাকে গ্রেফতার করল মানিকতলা থানার পুলিশ। সেচ দফতরে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার টোপ দিয়ে অনেকের কাছ থেকে টাকা তোলার অভিযোগ ছিল তাঁর বিরুদ্ধে। এছাড়া একাধিক আর্থিক প্রতারণার অভিযোগও রয়েছে। আগামীকাল তাঁকে আদালতে তোলা হবে। সেচ দফতরে দুর্নীতির তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। আর সেই তদন্তেরই প্রথম পদক্ষেপ হিসাবে রাখাল বেরাকে গ্রেফতার করা হল বলে মনে করা হচ্ছে। রাজ্যের প্রাক্তন সেচমন্ত্রী তথা বর্তমানে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত রাখাল বেরাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে আরও অনেক তথ্য পাওয়া যেতে পারে বলে মনে করছে পুলিশ।

    সাইক্লোন ইয়াসের দাপটে রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় বাঁধ ভেঙে পড়েছে। জলমগ্ন হয়েছে উপকূলবর্তী বহু গ্রাম। ফসল নষ্ট হয়েছে। সমুদ্রের নোনা জল ঢুকে ভেড়ির মাছ মারা গিয়েছে। ফলে গ্রামাঞ্চলের বহু মানুষের মাথায় হাত। অন্যদিকে, গ্রামের পর গ্রাম ভেসে যাওয়ায় বাড়ি-ঘর ভেঙে সর্বসান্ত হয়েছেন বহু মানুষ।  কীভাবে সেইসব বাঁধ ভেঙে পড়ল তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী। এর পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যজুড়ে শতাধিক বাঁধ ভেঙে পড়ার কারণ অনুসন্ধানের নির্দেশ দিয়েছিলেন। তার পরই পুলিশ তদন্তে নামে। আর তদন্তের শুরুতেই রাখাল বেরা গ্রেফতার। কান টেনে কি মাথাদের খোঁজ করার চেষ্টা করছে পুলিশ! সেচ দুর্নীতির ব্যাপারে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার পর থেকেই পুলিশ উঠেপড়ে লেগেছে দুর্নীতির শিকড় খুঁজে বের করতে। রাজ্যের সেচ মন্ত্রী ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। সেচ মন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব সামলেছেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ও। তাঁরা দুজনেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। শুভেন্দু অধিকারী আবার রাজ্যের বিরোধী নেতা। এমনিতেই বহু নেতা বেসুরো। গেরুয়া শিবিরে ভাঙনের ইঙ্গিত স্পষ্ট। তার উপর সেচ-দুর্নীতির তদন্তে এবার কোনওভাবে শুভেন্দু অধিকারী বা রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম জড়িয়ে পড়লে রাজ্য বিজেপির অস্বস্তি আরও বাড়তে পারে।

    Published by:Suman Majumder
    First published: