নবান্নের সামনে রাজীবের সমর্থনে পোস্টার, শুভেন্দু কাঁটার মধ্যেই নতুন চিন্তা তৃণমূলের

রাজীবের সমর্থনে পোস্টারে ছয়লাপ হাওড়া৷

নবান্নের সামনে থেকে শুরু করে হাওড়া স্টেশন- রবিবার গভীর রাতে গোটা শহর জুড়ে 'আমরা রাজীবপন্থী' নামে পোস্টারে ছয়লাপ হয়ে যায়৷

  • Share this:

#হাওড়া: এতদিন শুভেন্দু অধিকারীর সমর্থনে আমরা দাদার অনুগামী নামে পোস্টার পড়ছিল৷ তাতেই যথেষ্ট অস্বস্তিতে ছিলেন তৃণমূল নেতৃত্ব৷ এবার তাঁদের অস্বস্তি আরও বাড়িয়ে গোটা হাওড়া শহরজুড়ে আমরা রাজীবপন্থী নামে পোস্টার পড়ল৷ নবান্নের সামনে থেকে শুরু করে হাওড়া স্টেশন- রবিবার গভীর রাতে গোটা শহর জুড়ে 'আমরা রাজীবপন্থী' নামে পোস্টারে ছয়লাপ হয়ে যায়৷ যার ফলে রাজীবকে নিয়ে জল্পনা আরও বেড়েছে৷ বনমন্ত্রীর প্রশংসা করে সেই জল্পনা আরও বাড়িয়ে দিয়েছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ৷

শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে টানাপোড়েনের মধ্যেই শনিবার হঠাৎই তীব্র ক্ষোভের সুর শোনা যায় বনমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের গলায়৷ টালিগঞ্জের একটি অরাজনৈতিক অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, 'স্তাবকতা করলেই দলে গুরুত্ব পাওয়া যায়৷ হ্যাঁতে হ্যাঁ বললেই ভাল, না বললেই খারাপ৷ যাঁরা স্তাবকতা করে ঠান্ডা ঘরে বসে থাকেন, তাঁরাই এখন দলে সামনের সারিতে থাকেন বলেও সোচ্চার হন রাজীব৷ পরে ইঙ্গিতপূর্ণ ভাবে তিনি আরও বলেন, 'এর পরে দেখুন আরও কী হয়!'

রাজীবের এই অবস্থানের পর রবিবারই কলকাতায় রাজীবের সমর্থনে সততার প্রতীক বলে পোস্টার পড়েছিল৷ তার পর রবিবার রাতেই গোটা হাওড়া শহর জুড়ে রাজীবের সমর্থনে অসংখ্য পোস্টার পড়ে৷ পোস্টারের প্রচারের দায়িত্বে আমরা দাদার কর্মী বলে উল্লেখ রয়েছে৷ নবান্নের সামনের রাস্তা, হাওড়া স্টেশন, হাওড়া ময়দান, হাওড়া কোর্ট, দানেশ শেখ লেন, কোনা এক্সপ্রেসওয়ের মতো বিভিন্ন এলাকায় পোস্টার পড়লেও রাজীবের নিজের বিধানসভা এলাকা ডোমজুড়ে কোনও পোস্টার পড়েনি৷ যদিও রবিবার দিনভর রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি৷

রাজীবের ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রে অবশ্য খবর, এখনই দল ছাড়ার কোনও পরিকল্পনা নেই তাঁর৷ মূলত হাওড়ার আর এক তৃণমূল নেতা এবং মন্ত্রী অরূপ রায়ের বিরুদ্ধেই ক্ষোভ তাঁর৷ দীর্ঘদিন ধরেই যা নিয়ে ক্ষুব্ধ ছিলেন বনমন্ত্রী৷ এখন সুযোগ পেয়েই যা নিয়ে সরব হয়েছেন তিনি৷

রাজীব ক্ষোভপ্রকাশের পরেই অবশ্য তাঁকে বিঁধেছিলেন অরূপ৷ কটাক্ষ করে তিনি বলেন, 'চোরের মায়ের বড় গলা৷' যদিও পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেছেন, রাজীব পরিণত মস্তিষ্কের রাজনীতিবিদ৷ তিনি সঠিক সিদ্ধান্ত নেবেন বলেই আশা প্রকাশ করেছেন ফিরহাদ৷ অন্যদিকে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন, আমফানের পরে সবথেকে ভাল কাজ করেছেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ই৷

Debasish Chakraborty
Published by:Debamoy Ghosh
First published: