হাতিকে বাঁচাতে এবার নয়া নিয়ম, ট্রেনের গতি কমাবে রেল

হাতিকে বাঁচাতে এবার নয়া নিয়ম, ট্রেনের গতি কমাবে রেল

রাতে কমানো হয়েছে ট্রেনের গতি। দিনেও চালকদের অতিরিক্ত সাবধান থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

  • Share this:

#ঝাড়গ্রাম: উত্তরবঙ্গে নিয়মটা আছে অনেক দিন ধরেই। এবার দক্ষিণবঙ্গেও। ট্রেনের ধাক্কায় হাতির মৃত্যু ঠেকাতে তৎপর রেলমন্ত্রক। রাতে কমানো হয়েছে ট্রেনের গতি। দিনেও চালকদের অতিরিক্ত সাবধান থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

দলমা থেকে খাবারের খোঁজে প্রায়েই ঝাড়গ্রামে ঢুকে পড়ে হাতির দল। সমস্যা বেশি সরডিহা, খেমাশুলি, গিধনি, চাকুলিয়া, ঝাড়গ্রাম স্টেশন সংলগ্ন এলাকায়। রেললাইনের উপর হাতি চলে আসায় ব্যাহত হচ্ছে রেল পরিষেবা। দেরিতে চলছে মুম্বই মেল, জ্ঞানেশ্বরী এক্সপ্রেস, গীতাঞ্জলি এক্সপ্রেস, ভাস্কো ডা গা মা এক্সপ্রেস-সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ট্রেন। রেল দফতরের হিসেব বলছে, হাতির কারণে প্রতি ঘণ্টায় রেলের ক্ষতি দশ মিনিট। দুর্ঘটনা এড়াতে তৎপর হয়েছে রেলমন্ত্রক।

বিকেল পাঁচটা থেকে ভোর ছটা পর্যন্ত নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে ট্রেনের গতি। চাকুলিয়া থেকে কোকপাড়া ও খেমাশুলি থেকে সরডিহা পর্যন্ত ১৭.৫ কিমি পথ ঘণ্টায় ৪০ কিলোমিটার গতিতে চলছে ট্রেন।

দিনেও ট্রেনের গতি ৭০ কিমির বেশি থাকছে না। সঙ্গে বাজানো হচ্ছে ব্লো লং হুইসল। হাতির গতিবিধি জানতে প্রতি মূহূর্তে যোগাযোগ রাখা হচ্ছে বন দফতরের সঙ্গে।

এর আগে উত্তর পূর্ব সীমান্ত রেলের পক্ষ থেকে সিগনাল পোস্টে মৌমাছির আওয়াজ দেওয়ার পাইলট প্রজেক্ট নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু সফল হয়নি। এবার সেই প্রজেক্টের ভাবনা দক্ষিণ পূর্ব রেলে।

First published: 03:38:05 PM Oct 17, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर