তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থীর নাম ছাড়াই দেওয়াল লিখন চলছে রায়গঞ্জে!

তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থীর নাম ছাড়াই দেওয়াল লিখন চলছে রায়গঞ্জে!

Raiganj seeing wall writting without name of TMC candidate

রায়গঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রে তৃনমূল কংগ্রেস প্রার্থী কানাইয়ালাল আগরওয়াল। প্রার্থীর নাম ছাড়াই দেওয়াল লিখন চলছে রায়গঞ্জে! দেওয়াল লেখকের দাবি দল থেকে তাঁকে প্রার্থীর নাম লিখতে বারণ করা হয়েছে।

  • Share this:

#রায়গঞ্জ: রায়গঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রে তৃনমূল কংগ্রেস প্রার্থী কানাইয়ালাল আগরওয়াল। প্রার্থীর নাম ছাড়াই দেওয়াল লিখন চলছে রায়গঞ্জে! দেওয়াল লেখকের দাবি দল থেকে তাঁকে প্রার্থীর নাম লিখতে বারণ করা হয়েছে। তাই তৃনমূল কংগ্রেসের প্রতীক আঁকালেও প্রার্থীর নাম লিখছেন না তিনি।যদিও তৃণমূল কংগ্রেস জেলা মুখ্পাত্র সন্দীপ বিশ্বাস এই অভিযোগ মানতে চাননি। সন্দীপবাবুর দাবি রায়গঞ্জে প্রার্থীর নাম সহ দেওয়াল লিখন চলছে।

গত ৫ মার্চ তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের ২৯১ টি কেন্দ্রে প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেছেন। রায়গঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রে তিনি টিকিট দিয়েছেন উত্তর দিনাজপুর জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি কানাইয়ালাল আগরওয়ালকে।বহিরাগত প্রার্থীকে বাতিল করে স্থানীয়কে প্রার্থী করার দাবিতে ওই দিনই জেলা কার্যালয়ে ব্যপক বিক্ষোভ দেখায় রায়গঞ্জের তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীরা। প্রায় এক সপ্তাহ কেটে যাওয়ার পরও রায়গঞ্জের মাটিতে পা রাখেননি প্রার্থী কানাইয়ালাল আগরওয়াল।

দলের কর্মীরা ইতিমধ্যে দেওয়াল লিখন শুরু করেছেন৷ দেওয়ালে প্রতীক চিহ্ন থাকলেও প্রার্থীর নাম থাকছে না। প্রিন্টার সন্টু মল্লিক জানান দলের নেতারা তাঁকে প্রার্থীর নাম লিখতে বারণ করেছেন। তাই তিনি দলের বিভিন্ন বাণী এবং সরকারি  প্রকল্প লিখে প্রতীক আঁকিয়ে ছেড়ে দিচ্ছেন। সন্দীপ বিশ্বাস জানান,  জানান, সাংবাদিকদের চোখে দেওয়ালে প্রার্থীর নাম থাকছে না। বাস্তবে সমস্ত দেওয়ালেই প্রার্থীর নাম লেখা হচ্ছে। বহু দেওয়ালে সাদা চুনকাম করা হয়েছে। সামান্য কিছু দেওয়াল লিখন হয়েছে। সবখানেই প্রার্থীর নাম লেখা হচ্ছে।তাঁর দাবি তৃণমূল মানুষের হৃদয়ে থাকে আর বিরোধী দল দেওয়ালে থাকে। তৃণমূল উন্নয়ন দিয়েই ভোটে লড়বে।

আগামী সপ্তাহ থেকে পুরো দমে দেওয়াল লিখন শুরু হবে। বিজেপি-র অভিযোগ, বেশ কিছুদিন আগে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেছে। তিনি কোথায় আছেন কেউ জানে না। প্রার্থী ঘোষণার পর ব্যাপক বিক্ষোভ হয়েছে। সেই ভয়েই  হয়তো  প্রার্থী এলাকায় ঢুকতে পারছেন না।প্রার্থী পরিবর্তন হতে পারে এই আশঙ্কায় তারা প্রার্থীর নাম লিখছেন না বলে দাবি করেছেন বিজেপি জেলা সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ী। তাঁর আরও অভিযোগ, প্রার্থী পরিবর্তন হলে দলের মধ্যে গোষ্ঠীদ্বন্দ আরও বাড়বে।তিনি মনে করছেন ভোটের আগেই তৃণমূল কংগ্রেস হেরে বসে আছে।

(উত্তম পাল)

Published by:Subhapam Saha
First published:

লেটেস্ট খবর