কালীঘাটে এত টাকা কে পোড়ালো তার নিরপেক্ষ তদন্ত হওয়া প্রয়োজন, বর্ধমানের জনসভায় বললেন রাহুল সিনহা

কালীঘাটে এত টাকা কে পোড়ালো তার নিরপেক্ষ তদন্ত হওয়া প্রয়োজন, বর্ধমানের জনসভায় বললেন রাহুল সিনহা
বর্ধমানের সভায় রাহুল সিনহা

এদিন বিকেলে জনসভায় তিনি আগাগোড়া তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমালোচনায় বক্তব্যের অধিকাংশ সময় ব্যয় করেন।

  • Share this:

    #বর্ধমান: কালীঘাটে এত টাকা কে জ্বালালো? প্রশ্ন তুললেন বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা। সোমবার পূর্ব বর্ধমান জৃলার রায়নায় এক জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে এই প্রশ্ন তোলেন তিনি। তিনি বলেন,কার এতো টাকা যে এইভাবে পুড়িয়ে ফেলা হচ্ছিল? এই ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্ত হওয়া দরকার। এদিন বিকেলে জনসভায় তিনি আগাগোড়া তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমালোচনায় বক্তব্যের অধিকাংশ সময় ব্যয় করেন।

    বক্তব্য রাখতে গিয়ে রাহুল সিনহা বলেন, মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির পাশে এই টাকা পোড়ানোর ঘটনা অত্যন্ত চাঞ্চল্যকর। তাই কেন্দ্রীয় নিরপেক্ষ এজেন্সিকে দিয়ে এই ঘটনার তদন্ত করানো প্রয়োজন। এই টাকার সঙ্গে কত কালো টাকার কাহিনী যুক্ত আছে তা তদন্ত হওয়া প্রয়োজন। তিনি বলেন, কার ভয়ে কিসের কারণে কাদের থেকে বাঁচতে এই টাকা পোড়ানো হয়েছে তা জানা দরকার।

    বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা বলেন, ইডির ভয়ে, সিবিআইয়ের ভয়ে নাকি অন্য কোনও ভয়ে রাতারাতি আদি গঙ্গার পারে এতো টাকা পোড়ানো হলো এর তদন্ত হওয়া দরকার। ওখানে তো বড়লোকরা থাকেন না। একটাই রাজপ্রাসাদ আছে। তাছাড়া বেশিরভাগ বাসিন্দাই তো টালির ঘরে থাকেন তাই কে এত টাকা পোড়ালো তার নিরপেক্ষ তদন্ত হওয়া দরকার।তাতেই সব খোলসা হয়ে যাবে।


    ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর জন্মদিন পালন অনুষ্ঠানে জয় শ্রীরাম ধ্বনি প্রসঙ্গে রাহুল সিনহা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়েরই সমালোচনা করেন। তিনি বলেন, ওই অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রীকে অপমান করা হয়নি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই বরং নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুকে অপমান করেছেন। এই ঘটনায় অপমানিত হলেন বাংলার বুদ্ধিজীবীরা, বাংলার সাধারণ মানুষ।ওনার কথা বলার সময় তো কেউ জয় শ্রীরাম বলেনি। তাহলে ওনাকে বক্তব্য রাখতে বাধা দেওয়া হল কোথায়। বরং তিনিই ওই মঞ্চটাাকে সুকৌশলে রাজনৈতিক হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করেছেন। সভা শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমেরও কড়া সমালোচনা করেন রাহুল সিনহা।

    Published by:Arka Deb
    First published: