Purulia Death : অভিজাত আবাসনের ফ্ল্যাট থেকে বৃদ্ধ দম্পতির রক্তাক্ত মৃহদেহ উদ্ধার! তদন্তে পুলিশ...

বৃদ্ধ দম্পতির মৃহদেহ উদ্ধার প্রতীকী ছবি।

Purulia Death : মৃতদেহ দুটি পাঠানো হয় ময়নাতদন্তের জন্য। তবে পুলিশের প্রাথমিক অনুমান খুন করা হয়েছে বৃদ্ধ দম্পতিকে।

  • Share this:

    #পুরুলিয়া : বৃদ্ধ দম্পতির রহস্যমৃত্যুতে পুরুলিয়া জুড়ে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে। শহরের এক অভিজাত আবাসনের ফ্ল্যাট থেকে বৃদ্ধ দম্পতির রক্তাক্ত মৃহদেহ (Purulia Death) উদ্ধার করে পুলিশ। দেখা যায় ফ্ল্যাট ভেতর থেকে ভেসে আসছে রক্ত। সেখান থেকে উদ্ধার দম্পতির দেহ। ফ্ল্যাটের দরজা খুলতেই দেখা যায়, মেঝেতে মুখে বালিশ চাপা অবস্থায় পড়ে রয়েছেন গৃহকর্তা। আর বিছানায় রক্তাক্ত অবস্থায় তাঁর স্ত্রীর দেহ পড়ে রয়েছে। এটা খুন না আত্মহত্যা?‌ এই ঘটনায় পরিচিত কেউ জড়িত নাকি অপরাধী অপরিচিত?‌ সব প্রশ্নের উত্তর জানতে খতিয়ে দেখছে পুলিশ। নিহত দম্পতির মেয়েকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

    জানা গিয়েছে, মৃত দম্পতি ক্ষীরোদ সিংহ রায় (৭৬) ও কৃষ্ণা রায় (৭০) একাই থাকতেন আবাসনের ফ্ল্যাটে। শনিবার সকালে পরিচারিকা এসেই দেখতে পান তাদের মৃতদেহ পড়ে রয়েছে। খবর পেয়ে তদন্তে আসে পুলিশ। আসানসোল থেকে তদন্তের জন্য আনা হয় তদন্তকারী কুকুর। দুই সদস্যের ফরেনসিক দল ঘটনাস্থলের নমুনা সংগ্রহ করে। মৃতদেহ দুটি পাঠানো হয় ময়নাতদন্তের জন্য। তবে পুলিশের প্রাথমিক অনুমান খুন করা হয়েছে বৃদ্ধ দম্পতিকে।

    সূত্রের খবর, পুরুলিয়া শহরের তিন নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা ওই বৃদ্ধ দম্পতির একমাত্র মেয়ে পম্পা সরকার বিবাহিত। থাকেন কাছেই সদরপাড়ায়। প্রায় রোজই বাপের বাড়িতে আসা–যাওয়া ছিল তাঁর। এমনকী শুক্রবারও সন্ধ্যেবেলা বাপের বাড়িতে এসেছিলেন তিনি। বাবা–মায়ের সঙ্গে দেখা করে ফিরে যান। শনিবার দম্পতির ফ্ল্যাটে পরিচারিকা অঞ্জলি বাউড়ি কাজ করতে এসে কলিং বেল বাজান। কিন্তু সাড়াশব্দ পাননি তিনি। দরজায় সামান্য ধাক্কাতেই খুলে যায়। ভিতরে ঢুকে দেখেন মেঝেতে পড়ে রয়েছে গৃহকর্তার দেহ। বিছানা রক্তাক্ত কৃষ্ণাদেবী। গোটা ঘটনা ঘিরে উত্তেজনা ছড়িয়ে পরে এলাকায়। চলছে তদন্ত।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: