corona virus btn
corona virus btn
Loading

চাঁদমারী রেলগেটের 'বেয়াদপি'তে নাজেহাল রামপুরহাটের বাসিন্দারা

চাঁদমারী রেলগেটের 'বেয়াদপি'তে নাজেহাল রামপুরহাটের বাসিন্দারা
representative image

চাঁদমারী রেলগেটের 'বেয়াদপি'তে নাজেহাল রামপুরহাটের বাসিন্দারা

  • Share this:

#রামপুরহাট: আজব সমস্যা। রেলগেট আছে। ট্রেন আসার আগে ঠিক সময়েই তা পড়েও যায়। কিন্তু ট্রেন চলে যাওয়ার বহুক্ষণ পরও আর ওঠার নাম করে না। রেল লাইনের দুদিকে ততক্ষণে গাড়ির লম্বা লাইন। রামপুরহাট শহরের চাঁদমারী রেল গেটের এই ব্যবহারে নাজেহাল বাসিন্দারা।

রামপুরহাট শহরের চাঁদমারি রেল গেট। গেট ব্যবহার করেন শহরের ১, ১৩ ও ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দারা। এছাড়াও রামপুরহাট লাগোয়া কুশুম্বা, আয়াস ও নারায়ণপুরের কয়েক হাজার বাসিন্দার যাতায়াতের ভরসা এই রেলগেট।

একটা সময়ে রেললাইনের উপর ছিল ফুটব্রিজ। সেই ব্রিজ দিয়েই চলত যাতায়াত। ২০০৭ সালে মালগাড়ির ধাক্কায় ভেঙে যায় ফুটব্রিজ। সারানো হয়নি আজও। ফলে রামপুরহাট শহরের চাঁদমারি রেল গেটের উপর বেড়েছে চাপ। তৈরি হয়েছে সমস্যা।

স্থানীয়দের অভিযোগ, ট্রেন আসার আগে ঠিক সময়েই গেট পড়ে যায়। কিন্তু ট্রেন চলে যাওয়ার দীর্ঘক্ষণ পরও গেট আর ওঠে না। দুদিকে গাড়ি, বাইক, সাইকেল, টোটোর লম্বা লাইন পড়ে যায়। জীবনের ঝুঁকি নিয়েই রেল গেটের নীচ দিয়ে লাইন পেরোন অনেকে। অনেক সময়েই রেল গেটে দীর্ঘক্ষণ আটকে থাকে অ্যাম্বুল্যান্স। রামপুরহাট হাসপাতাল থেকে শুরু করে সরকারি অফিসে যেতে বা স্কুলে পৌঁছতে রোজ এভাবেই বিপজ্জনকভাবে রেললাইন পারাপাত চলছে। হুঁশ নেই রেল কর্তৃপক্ষের।

বিষয়টি নিয়ে মুখে কুলুপ রামপুরহাটের স্টেশন ম্যানেজার পুষ্কর কুমারের। ক্যামেরার পিছনে তাঁর দাবি, ফুট ওভারব্রিজ সংস্কারের জন্যআগেই জানানো হয়েছে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে। সরকারের তরফেও কেউ এগিয়ে আসেনি। রাজ্য টাকা বরাদ্দ না করলে কাজ শুরু সম্ভব নয়।

আরও পড়ুন-হুগলির ব্য়ান্ডেলে ধৃত ২ ভুয়ো টিকিট পরীক্ষক, ঘটনায় চাঞ্চল্য স্টেশন চত্বরে

First published: May 30, 2018, 1:50 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर