corona virus btn
corona virus btn
Loading

যাত্রী নেই, তাই পূর্ব বর্ধমানে দেখা নেই বেসরকারি বাসের

যাত্রী নেই, তাই পূর্ব বর্ধমানে দেখা নেই বেসরকারি বাসের

বর্ধমান শহর, কালনা, কাটোয়া সর্বত্রই সেভাবে বেসরকারি বাস রাস্তায় দেখা যাচ্ছে না। বেসরকারি বাস চলাচল স্বাভাবিক হতে আরও কয়েক দিন সময় লাগবে বলে জানাচ্ছেন বাস মালিকেরা

  • Share this:

#পূর্ব বর্ধমান: পূর্ব বর্ধমান জেলায় এখনও বেসরকারি বাসের দেখা নেই। বর্ধমান শহর, কালনা, কাটোয়া সর্বত্রই সেভাবে বেসরকারি বাস রাস্তায় দেখা যাচ্ছে না। বেসরকারি বাস চলাচল স্বাভাবিক হতে আরও কয়েক দিন সময় লাগবে বলে জানাচ্ছেন বাস মালিকেরা। তাঁরা বলছেন, দীর্ঘদিন অচল থাকার জন্য অনেক বাসেই যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দিয়েছে। অনেক বাসের সিটের গদি ছিঁড়ে গিয়েছে। অনেক বাসের ব্যাটারি বসে গিয়েছে, গ্রিজ শুকিয়ে গিয়েছে। টায়ার টিউব শক্ত হয়ে নষ্ট হয়ে গিয়েছে। সেসব বাস মেরামত করে তবেই রাস্তায় নামানো যাবে। তবে এখনও যাত্রী না থাকায় বাস চালাচ্ছেন না অনেকেই।

সোমবার থেকে unlock 1.0 শুরু হলেও শহর এলাকার বাইরে এখনও রাস্তায় সেভাবে ভিড় নেই। স্কুল, কলেজ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ। সরকারি অফিসও পুরো দমে চালু হয়নি। তাই বাসে আসা যাওয়ার তাগিদ অনুভব করছেন না অনেকেই। সেজন্যই রাস্তায় বাস নামানোর তাগিদ অনুভব করছেন না বাস মালিকেরা। বর্ধমান জেলা বাস অ্যাসোসিয়েশনের কর্মকর্তা শরৎ কোনার বলেন, '' করোনা আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। তাই আতঙ্কিত বাসিন্দারা বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া এলাকার বাইরে যাচ্ছেন না। কয়েকটি রুটে কিছু বাস চলছে। সেখানেও দেখা যাচ্ছে যাত্রী সংখ্যা একেবারেই কম। জ্বালানি তেল, চালক-কর্মীদের পারিশ্রমিক-সহ অন্যান্য নানা খরচ মিটিয়ে লাভ হওয়া তো দূরের কথা, রাস্তায় চাকা গড়ালেই লোকসানের বহর বাড়ছে। সেই কারণেও অনেকে বাস চালানোর সাহস পাচ্ছেন না।''

প্রথমে প্রশাসন জানিয়েছিল, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ২০ জন যাত্রী নিয়ে বাস চালানো যাবে। তাতে বাস ভাড়া বাড়বে সেই আশায় দিন গুনছিলেন অনেকেই। পরে সরকার জানিয়ে দেয় যত আসন তত যাত্রী তোলা যাবে। তাই ভাড়া বাড়িয়ে বাসিন্দাদের বাড়তি সমস্যায় ফেলা যাবে না। তাতেই আশাহত বাস মালিকেরা। পূর্ব বর্ধমানের অতিরিক্ত জেলা শাসক রজত নন্দা জানান, '' বাস মালিক সংগঠনগুলির সঙ্গে কথা হয়েছে। তাঁরা বাস চালানোর আশ্বাস দিয়েছেন। খুব তাড়াতাড়ি বেসরকারি বাস চলাচল শুরু হয়ে যাবে বলে আশা করছি। তবে বর্তমান পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে বাসে সুরক্ষা বিধি মানতে হবে। নিয়মিত বাস স্যানিটাইজ করতে হবে। চালক ও কর্মীদের মাস্ক, গ্লভস ও স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে হবে।''

SARADINDU GHOSH

Published by: Rukmini Mazumder
First published: June 2, 2020, 6:42 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर