জেলে বসেই তাঁতে তন্তুজের শাড়ি, বিছানার চাদর তৈরি করবেন বন্দিরা

জেলে বসেই তাঁতে তন্তুজের শাড়ি, বিছানার চাদর তৈরি করবেন বন্দিরা

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী সেপ্টেম্বর মাসেই চালু হয়ে যাবে এই কারখানা।

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী সেপ্টেম্বর মাসেই চালু হয়ে যাবে এই কারখানা।

  • Share this:

SHALINI DATTA #কৃষ্ণনগর: জেলেই এ বার তাঁতে তন্তুজের শাড়ি, বিছানার চাদর তৈরি করবেন বন্দিরা। এ বার সেই সব জিনিস বিক্রি হবে সরকারি সংস্থা তন্তুজেরই বিভিন্ন বিপণীতে। গত শুক্রবার, ৬ মার্চ এই কৃষ্ণনগর জেলে এই প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন রাজ্যের কারামন্ত্রী উজ্জ্বল বিশ্বাস এবং বস্ত্রমন্ত্রী স্বপন দেবনাথ। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী সেপ্টেম্বর মাসেই চালু হয়ে যাবে এই কারখানা।

জেল দফতর সূত্রে খবর, প্রায় ৫০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে তৈরি হবে এই কারখানা। প্রাথমিক ভাবে, কৃষ্ণনগর জেলা সংশোধনাগারের ৩৬ জন পুরুষ বন্দিকে নিয়ে তৈরি হবে ওই কারখানা। তন্তুজের ম্যানেজিং ডিরেক্টর রবীন্দ্রনাথ রায় বলেন, ‘‘এই সব বন্দিদের বেশির ভাগেরই মোটা সুতোয় তাঁত চালানোর অভিজ্ঞতা থাকলেও মিহি সুতোর কাজ করার অভিজ্ঞতা নেই। তাই প্রথমে ওই ৩৬ জন বন্দিদের দু’মাস ধরে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। তার পরেই ওঁরা তাঁতের পেশাদার হিসেবে কাজ শুরু করতে পারবেন।’’

কারা দফতর সূত্রে খবর, জেলের ভিতরে অনেকটা জায়গা নিয়ে বড় ওয়র্ক শেড তৈরি হচ্ছে। তাতে ৪টে হ্যান্ডলুম এবং ৪টে পাওয়ার লুম থাকবে। সেখানে মিহি এবং অপেক্ষাকৃত মোটা সুতোয় শাড়ি এবং বিছানার চাদর বুনবেন বন্দিরা। সেপ্টেম্বর মাস থেকে পেশাদার জিনিস বানাতে শুরু করবেন বন্দিরা। আর সেই সব জিনিস বাজারে বিক্রি করার ব্যবস্থা করবে তন্তুজ। তবে কিছু জিনিস জেল দফতর তার বিক্রয়কেন্দ্রে রেখেও বিক্রি করবে। এ বার সেই সব জিনিস বিক্রি হবে সরকারি সংস্থা তন্তুজেরই বিভিন্ন বিপণীতে।

Published by:Simli Raha
First published:

লেটেস্ট খবর