দক্ষিণবঙ্গ

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

মাত্র দু’‌টাকায় কলেজে ভর্তি হয়েছিলেন প্রণব, স্বাধীনতার তখন মোটে পাঁচ বছর

মাত্র দু’‌টাকায় কলেজে ভর্তি হয়েছিলেন প্রণব, স্বাধীনতার তখন মোটে পাঁচ বছর
ছবি:‌ প্রণবমুখার্জি ডট ইন

১৯৫২ সালে তিনি I.Sc কোর্সে কলেজে ভর্তি হন। এতদিন পরেও তাঁর মনে আছে, কলেজে তাঁর রেজিস্ট্রেশন নম্বর ছিল ৫০৫৭।

  • Share this:

#‌সিউড়ি:‌ সিউড়ির পরতে পরতে জড়িয়ে আছে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের নাম। সেখানেই সিউড়ি বিদ্যাসাগর কলেজে পড়াশোনা করেছিলেন তিনি। ২০১২ সালের ১৯ ডিসেম্বর সেই কলেজেই একটি সভাতে বক্তব্য রেখেছিলেন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি। সেখানেই তাঁর কথায় উঠে এসেছিল তাঁর কলেজ জীবনের কথা। ১৯৫২ সালে তিনি I.Sc কোর্সে কলেজে ভর্তি হন। এতদিন পরেও তাঁর মনে আছে, কলেজে তাঁর রেজিস্ট্রেশন নম্বর ছিল ৫০৫৭। আর রেজিস্ট্রেশন ফি ছিল মাত্রা ২ টাকা। মাত্র দু’‌টাকা দিয়েই কলেজে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি। তারপর ১৯৫৩ থেকে ৫৬ সাল পর্যন্ত তিনি বিএ কোর্স করেন। তাঁর মনে আছে, ১৯৫৬ সালের ১৩ অগাস্ট তিনি স্নাতক স্তরের মার্কশিট হাতে পেয়েছিলেন।

প্রণব পড়াশোনা চলাকালীন থাকতেন ছাত্রাবাসে। সেখানেই ছিল মোট আটটি ছাত্রাবাস। তার একটিতে থাকতেন প্রণব। সঙ্গী ছিলেন অধ্যাপক অমল মুখোপাধ্যায়, অধ্যাপক দীপেন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়, ষষ্ঠীকিংকর দাস, বলরাম দে, গঙ্গাচরম মিশ্রর মতো মানুষেরা। তাঁরা ছিলেন প্রণবের কাছের বন্ধু। সেই বন্ধুত্বের কথা ২০১২ সালে কলেজে উপস্থিত হয়েও বারবার করে বলেছিলেন প্রণব। সেই সময়ে সিউড়ি বিদ্যাসাগর কলেজের অধ্যক্ষ ছিলেন অধ্যাপক অরুণ সেন। সেই কথাও তাঁর মনে আছে। স্মৃতিধর প্রণবের বক্তব্যের আগাগোড়া সিউড়ির সেই কলেজের নস্টালজিয়া ছিল ছড়িয়ে। আজ সেই কলেজের উজ্জ্বলতম ছাত্রটি অসুস্থ হওয়ায় উদ্বেগে তাঁর কলেজের উত্তরসূরী থেকে বন্ধুরা সকলেই। সকলেই চাইছেন দ্রুত সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরুন প্রণব মুখোপাধ্যায়। তাঁকে নিয়ে উদ্বেগে রয়েছে বীরভূম জেলার একাধিক শহর। মাথায় রক্তক্ষরণ, পাশাপাশি করোনা সংক্রমণ, সব মিলিয়ে পরিস্থিতি উদ্বেগজনক তা একদিকে চিকিৎসকরাও জানিয়েছেন, জানিয়েছেন পরিবারে লোকেরাও। কিন্তু নিজের শহরের ‘‌পল্টু’‌–কে আবারও যে সুস্থ হয়ে পরিচিত হাসি হাসতে দেখতে চাইছে সিউড়ি। তাই তাঁকে সুস্থ হতেই হবে, বলছেন, বন্ধু, আত্মীয়, পরিজনেরা।

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: August 12, 2020, 5:25 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर