• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • Potato Farmers In Loss: মেঘলা আকাশ, ঝিরঝিরে বৃষ্টি! ধানের পর এবার আরেক ফসল ব্যাপক ক্ষতির মুখে

Potato Farmers In Loss: মেঘলা আকাশ, ঝিরঝিরে বৃষ্টি! ধানের পর এবার আরেক ফসল ব্যাপক ক্ষতির মুখে

Potato: মাঝ জানুয়ারিতে এমন স্যাতস্যাতে আবহাওয়া। মেঘলা আকাশ। ধারদেনা করে চাষের পর ফের ক্ষতির আশঙ্কা করছেন কৃষকরা।

Potato: মাঝ জানুয়ারিতে এমন স্যাতস্যাতে আবহাওয়া। মেঘলা আকাশ। ধারদেনা করে চাষের পর ফের ক্ষতির আশঙ্কা করছেন কৃষকরা।

Potato: মাঝ জানুয়ারিতে এমন স্যাতস্যাতে আবহাওয়া। মেঘলা আকাশ। ধারদেনা করে চাষের পর ফের ক্ষতির আশঙ্কা করছেন কৃষকরা।

  • Share this:

#বর্ধমান: ফের মেঘলা আকাশ। শেষে নিম্নচাপের হাত ধরে বৃষ্টির সম্ভাবনা। শীতের দাপট উধাও। তাতেই কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে রাজ্যের শস্যভান্ডার হিসেবে পরিচিত পূর্ব বর্ধমান জেলার কৃষকদের। এমনিতেই এবার শুষ্ক পোকার হামলা ও প্রাকৃতিক দুর্যোগে ধানের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। তা সত্ত্বেও লাভের মুখ দেখার আশায় ধারদেনা করে আলু চাষ করেছেন কৃষকরা। প্রতিকূল আবহাওয়ার কারণে এবার আলু চাষের ক্ষতির আশঙ্কা করছেন কৃষকরা।

আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, নিম্নচাপ রাজ্যে শীতের দাপট রুখে দিয়েছে। তাপমাত্রা স্বাভাবিককের থেকে অনেক ওপরে। জাঁকিয়ে শীতের বদলে গরম অনুভূত হচ্ছে। গা থেকে নেমে যাচ্ছে শীত পোষাক। মাঝ জানুয়ারিতে এমন আবহাওয়া সচরাচর দেখা যায় না। এই শীত না থাকা মেঘলা আবহাওয়া চাষের ক্ষেত্রে খুবই ক্ষতিকর বলছেন কৃষকরা।

আরও পড়ুন- বাড়ির সামনে সারি দিয়ে দাঁড়িয়ে হাতি ঘোড়া, করোনার গেরোয় বিপাকে কুমোর পাড়া

কৃষকরা বলছেন, রোদ ঝলমলে দিন ও জাঁকিয়ে শীত আলু চাষের পক্ষে আদর্শ। শীত যত দীর্ঘস্থায়ী হয়, আলুর ফলন তত ভাল হয়। শীত কমে গেলে রোগ পোকার প্রাদুর্ভাব বাড়ে। গাছ খারাপ হয়ে যায়। ফলন কমে যায়। তাছাড়া রোগ পোকা থেকে চাষ বাঁচাতে বার বার কীটনাশক প্রয়োগ করতে হয়। তাতে খরচ অনেকটাই বেড়ে যায়। এখন আবহাওয়া আলু চাষের পক্ষে যথেষ্টই প্রতিকূল।

দু দিন ধরে মেঘলা আবহাওয়া চলছে। তার ওপর বৃষ্টিও শুরু হয়ে গিয়েছে বেশ কিছু এলাকায়। এই আবহাওয়া আরও তিন চারদিন চলবে বলে আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে। টানা কয়েকদিনের এই প্রতিকূল আবহাওয়া আলু চাষের যথেষ্টই ক্ষতি করবে।

আরও পড়ুন- উপার্জন বন্ধ, খা খা করছে সৈকত! করোনার ধাক্কায় মন খারাপ দিঘার

পূর্ব বর্ধমান জেলার জামালপুর, মেমারি, শক্তিগড়, রায়নার দামোদর তীরবর্তী এলাকা, পূর্বস্থলীতে ব্যাপকভাবে আলু চাষ হয়। কালনা, শক্তিগড়ে ব্যাপকভাবে জলদি জাতের পোখরাজ আলুর চাষ হয়। সেই আলু এখন ওঠার মুখে। ঠিক সেই সময় প্রতিকূল আবহাওয়া চিন্তায় ফেলে দিয়েছে কৃষকদের। এখন এই দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া পার করে আবার জাঁকিয়ে শীত ও রোদ ঝলমলে পরিবেশ ফিরে আসার অপেক্ষায় কৃষকরা।

Published by:Suman Majumder
First published: