• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • POSTER SHOWING RABINDRANATH TAGORE BELOW AMIT SHAH CREATES CONTROVERSY IN BOLPUR DMG

উপরে অমিত শাহ, নীচে রবীন্দ্রনাথ! বিতর্কিত পোস্টার ঘিরে ক্ষোভ শান্তিনিকেতনে

সেই বিতর্কিত পোস্টার৷ Photo-Twitter

  • Share this:

    #বোলপুর: রবীন্দ্রনাথের উপরে অমিত শাহের ছবি৷ এমন পোস্টারকে কেন্দ্র করেই অমিত শাহের সফরের আগে তুমুল বিতর্ক শান্তিনিকেতনে৷ খোদ শান্তিনিকেতন চত্বরে এমন পোস্টার দেখে সাধারণ মানুষ এবং রবীন্দ্র অনুরাগীদের মধ্যেও ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে৷ পোস্টারকে অস্ত্র করে বিজেপি-কে কড়া আক্রমণ করেছে তৃণমূলও৷

    আগামী রবিবার বোলপুুর এবং শান্তিনিকেতন সফরে আসার কথা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের৷ সেখানে বেশ কিছু কর্মসূচি রয়েছে তাঁর৷ তার আগে সাজো সাজো রব বোলপুর জুড়ে।রাজ্যের শাসক দল যেমন তাদের পতাকা ফ্লেক্স লাগাতে ব্যস্ত তেমনই বিজেপিও পিছিয়ে নেই পথের দিকে। গোটা বোলপুর শহরকে পতাকা ও ফ্লেক্সি ভরিয়ে দিয়েছে দুই রাজনৈতিক দল। বোলপুরের প্রাক্তন সাংসদ এবং বিজেপি নেতা অনুপম হাজরার উদ্যোগে এলাকায় অমিত শাহকে স্বাগত জানিয়ে পোস্টার লাগানো হয়৷ আর সেই পোস্টার ঘিরেই যাবতীয় বিতর্কের সূত্রপাত৷ বোলপুর-শান্তিনিকেতন সংস্কৃতি বিকাশ সমিতির নামে দেওয়া ওই পোস্টারে একদম উপরে রয়েছে অমিত শাহের মুখের ছবি৷ আর তার নীচে রয়েছে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্কেচ৷ এই পোস্টারের মাধ্যমেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে স্বাগত জানানো হয়েছে৷ পোস্টারের একদম নীচে অনুপম হাজরার ছবি রয়েছে৷

    এই পোস্টার দেখেই ক্ষোভ প্রকাশ করেন শান্তিনিকেতনের ছাত্রছাত্রী থেকে শুরু করে প্রবীণ আশ্রমিকরা৷ তাঁদের অভিযোগ, এই পোস্টারের মাধ্যমে কবিগুরুর অবমাননা করা হয়েছে৷ এই পোস্টার লাগানোর জন্য বিজেপি নেতৃত্বকে আক্রমণ করে শাসক দল তৃণমূলও৷ শাসক দলের তরফে এই পোস্টারের ছবি দিয়ে ট্যুইটও করা হয়৷ সেখানে বিজেপি এবং অমিত শাহকে উদ্দেশ করে বলা হয়েছে, 'নিজেদের সীমা অতিক্রম করবেন না৷ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে অপমান করার সাহস কী করে হয়? আপনারা যে নিজেদের রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ঊর্ধ্বে বসিয়েছেন, এটা দেখাও চূড়ান্ত লজ্জার৷ বাংলার মানুষ কখনও আপনাদের ক্ষমা করবে না৷'

    বিজেপি নেতা অনুপম হাজরার অবশ্য দাবি, এই পোস্টার বিজেপি লাগায়নি৷ উল্টে তৃণমূলের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের দিকে আঙুল তোলেন তিনি৷ তাঁর অভিযোগ, বিজেপি-র নামে কুৎসা ছড়ানোর জন্যই এই কাণ্ড করেছে তৃণমূল৷ অনুব্রত পাল্টা বলেন, এর সঙ্গে তৃণমূলের কোনও যোগ নেই৷ তাঁর অভিযোগ, মনীষীদের সম্মান দিতে জানে না বিজেপি৷

    এই পোস্টারের ছবি নিউজ ১৮ বাংলায় সম্প্রচারিত হওয়ার পরই অবশ্য বিজেপি কর্মীরা দ্রুত তা সরিয়ে নেয়৷ রবিবার হেলিকপ্টারে কলকাতা থেকে এসে প্রথমে শান্তিনিকেতনের কুমিরডাঙ্গার মাঠে হেলিপ্যাডে নামবেন অমিত শাহ৷ সেখান থেকে সরাসরি চলে যাবেন বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তীর সঙ্গে সৌজন্যে সাক্ষাৎকারের জন্য। বিশ্বভারতী সূত্রে জানা গিয়েছে, বিশ্বভারতী ঘুরে দেখার জন্য ইচ্ছেপ্রকাশ করেছেন অমিত শাহ৷ সেই মতো তাঁকে বিশ্বভারতী ঘুরিয়ে দেখানো হবে। বিশ্বভারতী থেকে বেরিয়ে তিনি চলে যাবেন শ্যামবাটি এলাকার এক বাউল শিল্পীর বাড়িতে৷ সেখানে দুপুরের মধ্যাহ্নভোজ সেরে বোলপুরের ডাকবাংলো ময়দান থেকে বোলপুরের চৌরাস্তা পর্যন্ত অমিত শাহের রোড শো করার কথা রয়েছে৷ পদযাত্রার পর বোলপুরের চৌরাস্তায় একটি সভায় ছোট বক্তব্য রাখার কথা তাঁর৷ এর পর বোলপুরের একটি হোটেলে গিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হবেন অমিত শাহ। পরে দলীয় কর্মীদের নিয়ে বৈঠক সেরে এবং তিনি চলে যাবেন অণ্ডালে বিমানবন্দরে৷ সেখান থেকেই আবারও দিল্লির উদ্দেশে রওনা দেবেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

    যদিও শান্তিনিকতনে রাজনীতির এই টানাপোড়েনে বিরক্ত আশ্রমিক এবং ছাত্রছাত্রীরা৷ শান্তিনিকেতনের প্রবীণ আশ্রমিক সুপ্রিয় ঠাকুর বলেন, 'শান্তিনিকেতন এখন আর অরাজনৈতিক জায়গা নেই৷ রাজনীতির আখড়া হয়ে উঠেছে৷ বর্তমান উপাচার্য এসে এতে আরও প্রশয় দিচ্ছেন৷ রাজনীতিতে রবীন্দ্রনাথকে টানার দরকার নেই৷ যেভাবে এই পোস্টার লাগানো হয়েছে শান্তিনিকেতন এবং বোলপুর জুড়ে, তা খুবই অপমানজনক৷'

     Indrajit Ruj

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: