Home /News /south-bengal /
কালোবাজারি রুখতে বাজারে বাজারে অভিযান চালালো পুলিশ 

কালোবাজারি রুখতে বাজারে বাজারে অভিযান চালালো পুলিশ 

সাত সকালেই বাজারে পুলিশ সুপার। সঙ্গে বর্ধমান থানার আইসি। এদিন সকালে পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখোপাধ্যায় সদলবলে বর্ধমান শহরের বিভিন্ন সবজি বাজার ঘুরে দেখেন।

  • Share this:

#বর্ধমান: কালোবাজারি রুখতে বর্ধমানে পথে নামলেন পুলিশ সুপার। বাজারে বাজারে ঘুরে ক্রেতা বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জিনিসপত্রের দাম জানলেন। খুব প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে পা না রাখার পরামর্শ দিলেন। বাজারে আসতেই হলে দাঁড়ান সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে - বললেন পুলিশ সুপার। শহরের মূল রাস্তাগুলি শুনশান থাকলেও পাড়ায় পাড়ায় মুদিখানা দোকানে, বাজারগুলিতে ভালই জনসমাগম হচ্ছে বলে খবর। তা থেকে ছড়িয়ে পড়তে পারে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ। তা আটকাতেই বাজারে অভিযান বলে জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে।

সাত সকালেই বাজারে পুলিশ সুপার। সঙ্গে বর্ধমান থানার আইসি। এদিন সকালে পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখোপাধ্যায় সদলবলে বর্ধমান শহরের বিভিন্ন সবজি বাজার ঘুরে দেখেন। খবর নেন সবজির দরদামের। আলু পেঁয়াজ ডিম কি দামে বিক্রি হচ্ছে তার খোঁজ নেন তিনি। এরপর মাইক হাতে সর্তক করেন ব্যবসায়ীদের। দাম বাড়িয়ে ক্রেতাদের বিপদে না ফেলার পরামর্শ দেন। পুলিশ সুপার জানান, সবজি-সহ সমস্ত খাদ্য সামগ্রীর যোগান যথাযথ রয়েছে। তাই বাড়িতে বেশি বেশি করে মজুতের কোনও প্রয়োজন নেই। পাশাপাশি ক্রেতাদের গাদাগাদি করে নয় নির্দিষ্ট দূরত্ব রেখে বাজার করার পরামর্শ দেন। অযথা বাড়ির বাইরে বের হতে নিষেধ করেন। লক ডাউন মানতে নির্দেশ দেন। পুলিশ লাইন বাজারে পুলিশ সুপারের পাশাপাশি আই সি পিন্টু সাহাও উপস্থিত ছিলেন।

অনেক দোকানে ডিমের বাড়তি দাম নেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ। বিধানপল্লী এলাকায় ৮ টাকা পিস ডিম বিক্রির অভিযোগ পেয়ে বিক্রেতার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয় বর্ধমান থানার পুলিশ। কিছু কিছু জায়গায় আলু চড়া দামে বিক্রি করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ। লক ডাউনের সুযোগে কালোবাজারি যাতে না হয়, বাসিন্দারা যাতে এক সঙ্গে বাজারে দোকানে ভিড় না করেন তা নিশ্চিত করতেই জেলা পুলিশ সুপারের এই অভিযান বলে জানা গিয়েছে। এই অভিযান ধারাবাহিক ভাবে চলবে।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published:

Tags: Corona Virus, COVID-19, Police

পরবর্তী খবর