মমতার ভাঙা পায়ে 'ফুটবল' মোদির মাথা! বঙ্গ সংস্কৃতির 'সুদিন' ফেরাতে আশ্বাস প্রধানমন্ত্রীর

মমতার ভাঙা পায়ে 'ফুটবল' মোদির মাথা! বঙ্গ সংস্কৃতির 'সুদিন' ফেরাতে আশ্বাস প্রধানমন্ত্রীর

মোদির নিশানায় তৃণমূলের সংস্কৃতি।

এদিন ফের একবার তৃণমূলের ভোট প্রচারের স্লোগান 'খেলা হবে'-কে কটাক্ষ করেন মোদি। দেওয়াল-চিত্রে মমতার ভাঙা পায়ের তলায় ফুটবল হিসেবে নরেন্দ্র মোদির মাথার ছবির কথা উল্লেখ করে তৃণমূলের সংস্কৃতি নিয়ে প্রশ্ন তোলেন মোদি।

  • Share this:

    #বাঁকুড়া: শনিবারই খড়গপুরে সভা করেছিলেন মোদি। তার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ফের রাজ্য সফরে প্রধানমন্ত্রী। তার আগে বুধবার পুরুলিয়ায় সভা করেন তিনি। রবিবার বাঁকুড়ার তিলাবেদিয়ার জনসভায় শুরু থেকেই তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে জোর গলায় তোপ দাগেন নরেন্দ্র মোদি। তাঁর দাবি, 'যত দিদিকে প্রশ্ন করি, তত উনি আমার উপরে ক্ষুব্ধ হন। উনি তো এখন আমার চেহারাও পছন্দ করেন না'।

    তৃণমূলের দেওয়াল-চিত্র। তৃণমূলের দেওয়াল-চিত্র।

    এদিন ফের একবার তৃণমূলের ভোট প্রচারের স্লোগান 'খেলা হবে'-কে কটাক্ষ করেন মোদি। দেওয়াল-চিত্রে মমতার ভাঙা পায়ের তলায় ফুটবল হিসেবে নরেন্দ্র মোদির মাথার ছবির কথা উল্লেখ করে তৃণমূলের সংস্কৃতি নিয়ে প্রশ্ন তোলেন মোদি। তাঁর কথায়, 'রাজ্যের মানুষ তৃণমূলকে ভোটে শিক্ষা দিতে চায়, এটা দেখে দিদি ঘাবড়ে গিয়েছেন। তৃণমূল কর্মীরা আমার মাথার উপরে দিদির পায়ের ছবি আঁকছেন। আমি দেশের জন্য নিজের মাথা উৎসর্গ করেছি। দিদি, আমি আপনাকে বাংলার বিকাশকে লাথি মারতে দেব না। এ রাজ্যের মানুষের স্বপ্নকে লাথি মারতে দেব না।'

    নরেন্দ্র মোদির অভিযোগ, 'দিদি, আপনি ভেবেছিলেন কেউ কোনও প্রশ্ন করবে না। কিন্তু গোটা রাজ্য প্রশ্ন করছে, কেন্দ্র কোটি কোটি টাকা রাজ্যকে দিয়েছে। কিন্তু বাঁকুড়ায় জল নেই কেন? জমিতে জল নেই কেন? গত ১০ বছরে দিদি রাজ্যবাসীর সঙ্গে খেলে, আপনার মন ভরেনি? এখনও বলছেন খেলা হবে? এ বার খেলা শেষ হবে, বিকাশ আরম্ভ হবে।' ফের এদিন সভামঞ্চ থেকে রাজ্যে 'আসল পরিবর্তন' ও 'সোনার বাংলা' গড়ার ডাক দিয়ে মোদির দাবি, 'আমার চেহারা দেখুন বা না দেখুন, কিন্তু বিজেপি-র কার্যকর্তাদের চেহারা আপনার দীর্ঘ সময় মনে থাকবে। রাজ্যে ডাবল ইঞ্জিন সরকার হবে। সোনার বাংলার স্বপ্নকে সাকার করতে বিজেপি-কে ভোট দিন। দুর্নীতিমুক্ত সরকার গড়তে বিজেপি-কে ক্ষমতায় আনা প্রয়োজন'।

    রবিবারের বাঁকুড়ার সভা ৫ দিনে মোদির তৃতীয় সভা রাজ্যে। রাজ্যে প্রথম দফার ভোটগ্রহণ আগামী ২৭ মার্চ। তার আগে শেষ রবিবার কাজে লাগাতে প্রচারে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন প্রধানমন্ত্রী এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এদিন অমিত শাহও পূর্ব মেদিনীপুরের এগরায় বিজেপির ভোটপ্রচারে এসেছিলেন। এর পর আগামী ২৪ মার্চও রাজ্যে আসার কথা মোদির। ওই দিন কঁাথিতে জনসভা রয়েছে তাঁর। রবিবার মোদির রাজ্য সফরের পরই দলের ইস্তাহার প্রকাশ করার কথা অমিতের। পূর্ব মেদিনীপুর থেকে কলকাতায় ফিরে ইস্তাহার প্রকাশ করার কথা রয়েছে তাঁর।
    Published by:Raima Chakraborty
    First published: