• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • আগামিকাল থেকে ফের খুলছে পেট্রাপোল, করোনা বিধি মেনে সীমান্ত বাণিজ্যে অনুমতি রাজ্যের

আগামিকাল থেকে ফের খুলছে পেট্রাপোল, করোনা বিধি মেনে সীমান্ত বাণিজ্যে অনুমতি রাজ্যের

দীর্ঘদিন ধরে অচলাবস্থা চলছিল পেট্রাপোলে, ৭ অক্টোবর থেকে পেট্রাপোলে বাণিজ্যের অনুমতি দিল রাজ্য

দীর্ঘদিন ধরে অচলাবস্থা চলছিল পেট্রাপোলে, ৭ অক্টোবর থেকে পেট্রাপোলে বাণিজ্যের অনুমতি দিল রাজ্য

দীর্ঘদিন ধরে অচলাবস্থা চলছিল পেট্রাপোলে, ৭ অক্টোবর থেকে পেট্রাপোলে বাণিজ্যের অনুমতি দিল রাজ্য

  • Share this:

    #বনগাঁ: আগামিকাল থেকে ফের খুলছে পেট্রাপোল। করোনা বিধি মেনে চালু হচ্ছে সীমান্ত বাণিজ্য। দীর্ঘদিন ধরে অচলাবস্থা চলছিল পেট্রাপোলে, ৭ অক্টোবর থেকে পেট্রাপোলে বাণিজ্যের অনুমতি দিল রাজ্য।

    ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে সবচেয়ে বেশি মানুষ যাতায়াত করে উত্তর ২৪ পরগনার পেট্রাপোল সীমান্ত দিয়ে। এদেশে পেট্রাপোল, বাংলাদেশে বেনাপোল। মার্চ মাসে পশ্চিম বাংলার পাশাপাশি বাংলাদেশেও ভালরকম থাবা বসিয়েছিল করোনা ভাইরাস। ফলে ১৩ মার্চ থেকে এই স্থলবন্দর দিয়ে যাত্রীদের যাতায়াত নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয়। প্রাথমিক পর্যায়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় ১৩ মার্চ থেকে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ থাকবে দেশের সবচেয়ে বড় এই স্থল বন্দর।

    প্রথম লকডাউনের কিছুদিন পর থেকেই বন্ধ ছিল উত্তর চব্বিশ পরগণার পেট্রাপোল- বেনাপোল সীমান্তে ভারত এবং বাংলাদেশের মধ্যে আমদানি রফতানি বাণিজ্য। দ্বিতীয় দফার লকডাউনের অধিকাংশ সময়টুকুও সেই নির্দেশ বলবৎ ছিল৷ কিন্তু কিছুদিন আগেই পেট্রাপোল বেনাপোল সীমান্তে দুই দেশের আধিকারিকদের আলোচনার পর ফের আমদানি- রফতানি শুরু হয়। যদিও করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে রাজ্য সরকার।

    যদিও যাবতীয় সুরক্ষা বিধি মেনে লেনদেন হচ্ছে কি না, তা খতিয়ে দেখতে বিশেষজ্ঞদের দলও সীমান্তে ঘুরে যায়। লকডাউনের শুরুতে কেন্দ্রীয় সরকারের নির্দেশ ছিল, দু' দেশের নাগরিক চাইলে এই বন্দর ব্যবহার করে দেশে ফিরতে পারবেন। আমদানি রফতানির কাজ চলবে। বাস্তবে প্রথম দফার লকডাউন শুরু হওয়ার কয়েকদিন পরই এই সীমান্ত দিয়ে বাণিজ্য বন্ধ হয়ে যায় ।

    এই সীমান্তের কর্মরত শ্রমিকরা করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা প্রকাশ করে আসছিলেন। তাঁদের দাবি, পণ্য পাঠাতে ভারতের যে সমস্ত ট্রাক বাংলাদেশে যাবে সেখান থেকে কেউ সংক্রমিত হয়ে ফিরলে বিপদ আরও বাড়বে। সেই মতকে সমর্থন করে বনগাঁর প্রাক্তন বিধায়ক গোপাল শেঠ পেট্রাপোল বেনাপোল সীমান্ত বন্ধের দাবী জানিয়ে চিঠি দেন জেলা শাসককে।

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published: